মঙ্গলবার, ২৮ Jun ২০২২, ০৬:০০ অপরাহ্ন

পদ্মা সেতু হয়ে যে ২৩ রুটে চলবে বিআরটিসির শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বাস

পদ্মা সেতু হয়ে যে ২৩ রুটে চলবে বিআরটিসির শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বাস

পদ্মা সেতু চালুর পরদিন ২৬ জুন থেকে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ২৩ রুটে বাস পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি)। এসব রুটে শুরুতে ৬৫টি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বাস দেওয়া হবে। বিআরটিসির জেনারেল ম্যানেজার মেজর মোক্তারুজ্জামান আজ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিআরটিসি চায়, আপাতত ২৩ রুটে বাস চলবে। মাসখানেক পরে এর চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে এ বাসের সংখ্যা বাড়ানো হবে।মোক্তারুজ্জামান বলেন, আপাতত ২৩ রুটে বাস চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পরে চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে এর সংখ্যা বাড়ানো যেতে পারে।

এখন ঢাকা–খুলনা রুটে ১৬টি এবং ঢাকা–যশোর রুটে ২টি, বিআরটিসির মোট ১৮টি বাস চলাচল করে। এসব পুরোনো রুটের সঙ্গে এখন নতুন রুট যুক্ত হচ্ছে।

২৬ জুন থেকে যেসব রুটে বাস বাস চলবে, সেগুলো এসি বাস হবে। পরে অবশ্য নন–এসি বাস চালুর ভাবনা আছে বিআরটিসির।

বিআরটিসির জেনারেল ম্যানেজার মোক্তারুজ্জামান প্রথম আলোকে বলেন, ঢাকার বিভিন্ন ডিপো থেকে ২৩টি রুটে বাসগুলো পরিচালনা করা হবে। এসব রুটে ২০১৯ সালে ভারত থেকে আনা আশোক লেল্যান্ড বাসগুলো চলাচল করবে।

যেসব রুটে চলবে বিআরটিসির বাস-

ঢাকা (গুলিস্তান) থেকে গোপালগঞ্জ, ফকিরহাট হয়ে খুলনা।

ঢাকা (গুলিস্তান) থেকে ভাঙ্গা, গোপালগঞ্জ, খুলনা, যশোর হয়ে বেনাপোল।

ঢাকা (গুলিস্তান) ভাঙ্গা, গোপালগঞ্জ, খুলনা হয়ে সাতক্ষীরা।

ঢাকা (গুলিস্তান) থেকে টেকেরহাট, মোস্তফাপুর, গৌরনদী হয়ে বরিশাল।

ঢাকা (গুলিস্তান) থেকে জাজিরা ভাঙ্গা হয়ে শরীয়তপুর।

ঢাকা (গুলিস্তান) থেকে ভাঙ্গা, ভাটিয়াপাড়া, নড়াইল হয়ে যশোর।

ঢাকা (মিরপুর-১২) থেকে ফুলবাড়িয়া, সায়েদাবাদ, ভাঙ্গা, টেকেরহাট, মোস্তফাপুর হয়ে গৌরনদী

ঢাকা (আবদুল্লাহপুর) থেকে শিবচর, টেকেরহাট, মোস্তফাপুর হয়ে মাদারীপুর।

ঢাকা (আবদুল্লাহপুর) থেকে ভাঙ্গা, মোস্তফাপুর, গৌরনদী, আগৈলঝারা হয়ে পয়সারহাট

নরসিংদী থেকে গুলিস্তান, মাওয়া, শিবচর, মাদারীপুর হয়ে চরমুগুরিয়া।

নরসিংদী থেকে গুলিস্তান, মাওয়া, মুকসুদপুর হয়ে কাশিয়ানি।

ঢাকা থেকে জাজিরা হয়ে শরীয়তপুর

ঢাকা থেকে ভাঙ্গা, বরিশাল, পটুয়াখালী হয়ে কুয়াকাটা।

ঢাকা থেকে ভাঙ্গা, গোপালগঞ্জ, কাটাখালি, ফকিরহাট হয়ে খুলনা।

ঢাকা থেকে ভাঙ্গা, ভাটিয়াপাড়া, কালনাঘাট, লোহাগড়া, নড়াইল হয়ে যশোর।

ঢাকা ভাঙ্গা, মুকসুদপুর, গোপালগঞ্জ, টুঙ্গিপাড়া, নাজিরপুর হয়ে পিরোজপুর।

ঢাকা (গুলিস্তান) থেকে শরীয়তপুর, ডামুড্যা বাইপাস হয়ে গোসাইরহাট।

ঢাকা (গুলিস্তান) থেকে শরীয়তপুর, প্রেমতলী হয়ে মোল্লারহাট।

ঢাকা (গুলিস্তান) থেকে যাত্রাবাড়ী, ভাঙ্গা হয়ে বরিশাল।

কুয়াকাটা থেকে পটুয়াখালী, বরিশাল, ভাঙ্গা হয়ে যাত্রাবাড়ী।

বাউফল থেকে বরিশাল, ভাঙ্গা হয়ে যাত্রাবাড়ী

ভান্ডারিয়া থেকে বরিশাল ভাঙ্গা হয়ে যাত্রাবাড়ী

ঢাকা থেকে ভাঙ্গা, বরিশাল, পটুয়াখালী হয়ে কুয়াকাটা।

উল্লেখ্য, ২৫ তারিখ সেতু উদ্বোধনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ২৬ তারিখ সকাল ছয়টা থেকে টোল দিয়ে সেতু পার হওয়া যাবে। ইতোমধ্যে টোলের হার নির্ধারণ করেছে সেতু বিভাগ। কোরিয়ান এক্সপ্রেসওয়ে করপোরেশন-কেইসি ও চীনের মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড-এমবিইসি যৌথভাবে টোল আদায় করবে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2022 banglaekattor.com