সোমবার, ২৭ Jun ২০২২, ০১:৫৮ অপরাহ্ন

ভোরের আলো ফোটার পরই বেরিয়ে আসছে একের পর এক লাশ, সংখ্যা বেড়ে ১৩, আহত ৪০

ভোরের আলো ফোটার পরই বেরিয়ে আসছে একের পর এক লাশ, সংখ্যা বেড়ে ১৩, আহত ৪০

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের বিএম কন্টেইনার ডিপোতে গতকাল শনিবার (৪ জুন) রাতে লাগা আ’গুন অনেকটাই কমে এসেছে। তবে রোববারের ভোরের আলো ফোটার পর থেকেই বাড়ছে লা’শের সংখ্যা। সকালে ঘটনাস্থল থেকেই উ’দ্ধার করা হয়েছে চারজনের লা’শ। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মা’রা গেছেন দ’গ্ধ একজন। সবমিলিয়ে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মৃ’তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ জনে। নি’হতদের উ’দ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।

শনিবার (৪ জুন) রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ কন্টেইনার ডিপোতে আ’গুন লাগে। রাত বাড়ার সাথে সাথে এ আ’গুনের ঘটনার ভয়াবহতা বাড়ে। তবে আ’গুনের মাত্রা ক্রমেই কমে আসছে। তবে বেড়েছে ধোঁয়ার তীব্রতা।কনটেইনার ডিপোতে দ’গ্ধ ও আ’হতদের উ’দ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপালের পাশাপাশি আশপাশের বেস’রকারি ক্লিনিক-হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

এ ঘটনার কারণে চট্টগ্রামের সকল চিকিৎসকের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। আর সকল চিকিৎসককে হাসপাতালে যোগ দিতে নির্দেশ দিয়েছে চট্টগ্রামের জে’লা সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি স্থানীয় বেস’রকারি হাসপাতালেও দ’গ্ধদের চিকিৎসা সেবা দিতে বলেছে সিভিল সার্জনের কার্যালয়।

জানা গেছে, হাসাপাতালে রো’গীদের চিকিৎসা সেবা দিতে এ পজেটিভ, এ নেগেটিভ, এবি পজেটিভ এবং ও পজেটিভ র’ক্তের সং’কট দেখা গিয়েছে। অবশ্য স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো এগিয়ে আসছে সহযোগিতার জন্য।

সর্বশেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, আ’গুন নেভাতে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ২৫টি ইউনিট। ইতোমধ্যে কাজ করতে গিয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৯জন কর্মী আ’হত হয়েছেন। ঘটনাস্থলে সহযোগিতা করার জন্য আশপাশের কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী ও লক্ষ্মীপুরের ফায়ার সার্ভিসের বিভিন্ন স্টেশনের কাছে সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে এসব স্টেশন থেকে ঘটনাস্থলে ইউনিট যুক্ত হয়েছে।

বিএম কন্টেইনার ডিপোতে আম’দানি ও রফতানির বিভিন্ন মালামালবাহী ৫০ হাজার কন্টেইনার আছে বলে জানা গেছে। তাতে রাসায়নিক দ্রব্যের কন্টেইনারও রয়েছে। কনটেইনার ডিপোতে কিছুক্ষণ পরপর বি’স্ফোরণের শব্দ শোনা যাচ্ছে। এরমধ্যে চার কিলোমিটার দূরেও শোনা গেছে কোনো কোনো বি’স্ফোরণের শব্দ। বি’স্ফোরণে আশপাশের এলাকার বিভিন্ন ভবনের কাচ ভে’ঙে গেছে।

বি’স্ফোরণে এক পুলিশ সদস্যের পায়ের গোড়ালি বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এ পুলিশ সদস্যের নাম তুহিন। তিনি সীতাকুণ্ড থানায় কনস্টেবল পদে দায়িত্বে রয়েছেন। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আ’গুনের এ ঘটনায় অনন্ত নয়জন সদস্য আ’হত হয়েছেন। এরমধ্যে সাতজন শিল্প পুলিশ এবং দুইজন সীতাকুণ্ড থানার।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2022 banglaekattor.com