কারাগার থেকে বাসায় ফিরে ফুলেল শুভেচ্ছায় ভাসছেন পরীমনি - বাংলা একাত্তরকারাগার থেকে বাসায় ফিরে ফুলেল শুভেচ্ছায় ভাসছেন পরীমনি - বাংলা একাত্তর

শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০০ অপরাহ্ন

কারাগার থেকে বাসায় ফিরে ফুলেল শুভেচ্ছায় ভাসছেন পরীমনি

কারাগার থেকে বাসায় ফিরে ফুলেল শুভেচ্ছায় ভাসছেন পরীমনি

ঢাকাই সিনেমার আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমণি মাদক মামলায় গ্রেফতারের পর ২৬ দিন শেষে জামিন পেয়েছেন। বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি। জামিন পেয়ে বাসায় ফেরার পর থেকেই ভক্ত, শুভাকাঙ্ক্ষীদের ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হচ্ছেন পরীমনি। ভক্তরা তাকে ভার্চুয়ালি শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন।

এদিকে কারাগার থেকে সকালে বাসায় যেতেই চমকে যান পরীমণি। তাকে বনানীর বাসাটি ছাড়তে হবে। বাসাটি ছাড়ার নোটিশ দিয়েছেন ফ্ল্যাট মালিক। বুধবার বিকালে একটি সংবাদমাধ্যমকে পরীমনি বলেন, কারাগার থেকে ঘরে ঢোকার পর বাসা ছাড়ার নোটিশ দেখতে পেলাম। এখন কি তাহলে আমার বসবাসের অধিকারটা পর্যন্ত কেড়ে নিচ্ছে ওরা? ওরা যা চেয়েছিল, তা-ই কি হচ্ছে? আমি কি তাহলে ঢাকা ছেড়ে চলে যাব, নাকি দেশ ছেড়ে চলে যাব?

আলোচিত এ নায়িকা বলেন, আমি তো একা থাকি না। আমার বয়স্ক নানুভাই আছেন। হঠাৎ করে এসব কী! হঠাৎ করে কই যাব, সেটা কি কেউ বলতে পারেন? ঢাকাই ছবির এ চিত্রনায়িকা বলেন, এখন এই মুহূর্তে আমাকে কে বাসা খুঁজে দেবে? তিনি জানান, চার দিন আগে তাকে এই বাসা ছাড়ার নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আজ বাসায় ফিরে জানতে পারেন তিনি।

এদিকে চিত্রনায়িকা পরীমণির ডান হাতের তালুতে ‌‘ডোন্ট লাভ মি বিচ’ আঁকা দেখা যায়। তাঁর হাতের লেখায় কোনো বার্তা ছিল কি না; সে বিষয়ে পরীমনি বলেন, ডেফিনিটলি এটা তো একটা বার্তাই ছিল। এবিষয়ে গণমাধ্যমের প্রশ্নের জবাবে পরীমণি নিজেই জানিয়েছেন, এটা আসলে সকল বিচদের জন্যই। যারা উপরে উপরে আমাকে ভালোবাসা দেখায়। এরা এখন আবার আমার কাছে আসবে। আমারা চারপাশে ঘুরবে। আমাকে ভালোবাসে দেখাবে। তাদের উদ্দেশ্যেই এ বার্তা।

এর আগে মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক কেএম ইমরুল কায়েশ শুনানি শেষে ৫০ হাজার টাকা মুচলেকায় পরীমণির জামিন আদেশ দেন। তিন কারণ বিবেচনায় পরীমণিকে জামিন দেওয়া হয়েছে। যেহেতু পরীমণি একজন চিত্রনায়িকা এবং একজন নারী। তাছাড়া সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত প্রীতিলতা নামক একটি চলচ্চিত্রে তার অভিনয়ের শিডিউল চলছে। এসব বিষয় বিবেচনায় তদন্ত প্রতিবেদন (চার্জশিট) দাখিল পর্যন্ত জামিনের আদেশ দেন আদালত।

গত ১৯ আগস্ট পরীমণির একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আতিকুল ইসলাম। এর আগে গত ১০ আগস্ট পরীমণি ও আশরাফুল ইসলাম দীপুর দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত বিশ্বাস। তার আগে ৫ আগস্ট পরীমণি ও দীপুর চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশিদ। মাদক মামলায় গত ১৩ আগস্ট পরীমণি ও তার সহযোগী আশরাফুল ইসলাম দীপুকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। ওই দিন সন্ধ্যা ৭টায় তাকে গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়া হয়। কারা সূত্র জানায়, পরীমণিকে কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে (রজনীগন্ধা ভবন) রাখা হয়।

গত ৪ আগস্ট রাতে প্রায় চার ঘণ্টার অভিযান শেষে বনানীর বাসা থেকে পরীমণি ও তার সহযোগী দীপুকে আটক করে র‍্যাব। এ সময় পরীমণির বাসায় বিভিন্ন মাদক পাওয়া গেছে বলে জানায় র‍্যাব। ৫ আগস্ট র‍্যাব-১ বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পরীমণি ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে বনানী থানায় মামলা করে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com