শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ১২:৫১ পূর্বাহ্ন

পিছু হটেছেন পরীমনি, সমঝোতার চেষ্টা ?

পিছু হটেছেন পরীমনি, সমঝোতার চেষ্টা ?

মা’মলা করার এক সপ্তাহের মধ্যেই পিছু হ’টেছেন চিত্র নায়িকা পরীমনি। তিনি এখন মা’ম’লার মূল আ’সামি নাসির ইউ. আহমেদের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টা করছেন বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে পরীমনির পক্ষ থেকে কয়েকজন নাসির ইউ. আহমেদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন বলেও দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে।

তবে নাসির ইউ. আহমেদের পারিবারিক সূত্র বলছে যে, তারা এই বি’ষয়টিকে সিরিয়াসলি নিয়েছেন এবং তারা প্রকৃত তথ্য প্রমাণের জন্য এ মা’ম’লা লড়ে যেতে চান। কারণ তাদের বিশ্বাস যে শেষ পর্যন্ত এই মা’ম’লায় পরীমনি ফেঁ’সে যাবেন।

উল্লেখ্য যে, ৮ জুন ঢাকা বোট ক্লাবে পরীমনি এবং তার কয়েকজন সঙ্গে সেখানে গিয়েছিল। সেখানে একটি অ’প্রীতিকর ঘটনা ঘটে। এই অ’প্রীতিকর ঘটনার তিন দিন পর পরীমনি ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ‘বিচার চান। এরপর তিনি গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন।

এর পরদিনই পু’লিশের অনুরোধে তিনি সাভার থানায় একটি মা’ম’লা করেন। সেই মা’ম’লা দা’য়েরের চার ঘণ্টার মধ্যে মা’ম’লার প্রধান আ’সামীসহ পাঁচজনকে আইন প্রয়োগকারী সং’স্থার সদস্যরা গ্রে’ফ’তার করেন। এখন নাসির ইউ. আহমেদসহ আ’সামিরা পুলিশ রি’মান্ডে আছেন। পুলিশ তাদেরকে জি’জ্ঞাসাবাদ করছেন।

কিন্তু এই জি’জ্ঞাসাবাদের মধ্যেই পরীমনির সম্পর্কে চা’ঞ্চল্যকর সব তথ্য বেরিয়ে আসছে। বিশেষ করে পরীমনি মা’মলার এজাহারে যে বক্তব্য দিয়েছেন তার সঙ্গে বাস্তব ঘটনার মিল নেই বলে বিভিন্ন সূত্র নিশ্চিত করেছেন। যেমন পরীমনি বলেছিলেন যে, তিনি অ’নিচ্ছায় বোট ক্লাবে গিয়েছিলেন। কিন্তু সিসিটিভি ফুটেজ এবং অন্যান্য তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে যে পরীমনি সেখানে সেচ্ছায় গিয়েছিলেন।

পরীমনি অ’ভিযোগ করেছেন যে, বোট ক্লাবে তাকে জো’র করে ম’দ খাওয়ানো হয়েছে। কিন্তু এখন প্রকাশিত ছবি দেখে বোঝা যাচ্ছে যে তাকে জো’র করে নয় বরং স্বেচ্ছায় পরীমনি সেখানে ম”দ্যপান করেছিলেন।

পরীমনি বলেছেন যে, তিনি কোনো দিন ম”দ খাননি। খাওয়ার পরে তার গ’লা ছি’রে যাচ্ছিল। কিন্তু গণমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায় পরীমনির বাসাতেই দামি দামি ম’দের সমারোহ। তাছাড়া এই ঘটনার পর অল কমিউনিটি ক্লাবের ভিডিও ফুটেজ এবং বানানি ক্লাবে ভাং’চু’রের ঘটনা প্রকাশিত হলে পরীমনি মোটামুটি ফেঁ’সে যান।

প্রথম দিকে তার পক্ষে যেরকম একটি জনমত ছিল, শিল্পীসমাজ যেমন তার পক্ষে অবস্থান নিয়েছিল, এই সমস্ত তথ্য এবং ছবি প্রকাশের পর তারাও গুটিয়ে গেছেন। ফলে শুরুতে পরীমনি`র পক্ষে সবাই ছিলেন, এখন অবস্থা হয়েছে তার বিপরীত। আর এ কারণেই এখন পরীমনি বুঝতে পারছেন এই ঘটনাকে যদি বেশি দূর এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় তাহলে তার ক্যারিয়ারের ক্ষ”তি হবে এবং তিনিও আইনি জ’টিলতায় পড়বেন।

তাছাড়া বোট ক্লাবের সিসিটিভি ফুটেজ এবং অন্যান্য যে তথ্য উপাত্ত সেগুলো বিশ্লেষণ করে দেখা যায় যে, পরীমনি কখনোই এই মা’মলা প্রমাণ করতে পারবেন না। আর এ কারণেই পরীমনি এখন দুত লাগিয়েছেন যে যাতে করে এই মা’মলাটি ধা’মাচা’পা দেওয়া যায় বা প্র’ত্যাহার করা যায়।

কিন্তু আইন বিজ্ঞানীরা বলছেন যে, বোট ক্লাবের ঘটনার পর পরীমনির যে অবস্থা, যে অবস্থাটা তিনি অর্জন করেছিলেন সেটি আস্তে আস্তে খা’রাপের দিকে চলে গেছে। এর ফলে মনে করা হচ্ছে যে পরীমনি এখন বাঁ’চার জন্যই সমঝোতার পথ বেছে নিয়েছেন। সূত্রঃ বাংলা ইনসাইডার

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com