সোমবার, ২৬ Jul ২০২১, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
২৯ বছর কোমায় থেকে জ্ঞান ফিরতেই রাতারাতি ১৩০ কোটি টাকার মালিক! অনলাইন নিবন্ধন ছাড়াই ৭ আগস্ট থেকে গ্রামে দেওয়া হবে করোনার টিকা মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রীর সুপারিশে হেলেনা উপকমিটিতে? করোনার টিকা নিয়ে উপহাস করা সেই ব্যক্তির কোভিডেই মৃত্যু রিফান্ড ও চেক ইস্যু নিয়ে যা বললেন ইভ্যালির রাসেল সুযোগ দিন, ৬ মাসে পুরনো সব অর্ডার ডেলিভারি দেব : রাসেল ম্যাসেঞ্জারে বুয়েটের চার শিক্ষার্থীর নির্লজ্জতায় তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া তিন দিনে ৬ কাশ্মীরিকে গুলি করে হত্যা করলো ভারতীয় বাহিনী বন্দুক নিয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে তরুণীর মৃত্যু রাতে ঘর থেকে তুলে নিয়ে ধ”র্ষ’ণ, ভোরে মিলল মা’দরাসাছা’ত্রীর লা’শ
যুক্তরাষ্ট্রে জিয়াউর রহমানের নামে সড়কের নামকরণ

যুক্তরাষ্ট্রে জিয়াউর রহমানের নামে সড়কের নামকরণ

যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ড স্টেটের বাল্টিমোর সিটির ডিপার্টমেন্ট অব ট্রান্সপোর্ট কর্তৃপক্ষ শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বীর উত্তম-এর নামে একটি সড়কের নামকরণ করেছে।রোববার মেরিল্যন্ডে বাংলাদেশী-আমেরিকান কমিউনিটি আয়োজিত একটি বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে ‘জিয়াউর রহমান ওয়ে’ নামে সড়কটির ফলক উন্মোচন করেন মেরিল্যান্ড স্টেট ডেলিগেট রবিন টি লুইস। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে লন্ডন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন মেরিল্যান্ড হাউস মেম্বার ডেলিগেট রবিন টি লুইস, ডেলিগেট হ্যারি ভেন্ডারি, গভর্নর অফিসের কমিশনার ড. স্যাম কারকি, মেয়র অফিসের প্রতিনিধি রবার্ট জ্যাকসন, ওয়াশিংটনভিত্তিক অধিকার সংস্থা রাইট টু ফ্রিডমের নির্বাহী পরিচালক ও জাতিসঙ্ঘ সংবাদদাতা মুশফিকুল ফজল আনসারি, স্থানীয় মূলধারার রাজনীতিক গভর্নর অফিসের সাবেক কমিশনার আনিস আহমেদ প্রমুখ।

উদ্বোধক রবিন টি লুইস বলেন, বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে সম্মান জানাতে পেরে বাল্টিমোরবাসী অত্যন্ত আনন্দিত। শহীদ জিয়াকে আন্তর্জাতিক নায়ক উল্লেখ করে স্থানীয় এই জনপ্রতিনিধি বলেন, তাকে সম্মান জানানোর অর্থ হচ্ছে- গণতন্ত্রের প্রতি, মানুষের অধিকারের প্রতি সম্মান জানানো। তিনি আরো বলেন, প্রেসিডেন্ট জিয়া যেমন দেশ গড়েছেন, তেমনি মানুষের অধিকারকেও সমুন্নত রেখেছেন। ডেলিগেট হ্যারি ভেন্ডারি বলেন, আজকের এই আনন্দ কেবল বাংলাদেশী কমিউনিটির নয়, সমগ্র এশিয়ান কমিউনিটির। এই শহরে প্রেসিডেন্ট জিয়ার নামে যে সড়কের ফলক উন্মোচিত হলো তা চির অম্লান থাকবে।

মুশফিকুল ফজল আনসারি ১৯৮১ সালে প্রকাশিত ওয়াসিংটন পোস্ট এবং জিয়াউর রহমানের শাহাদতের পর তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট রিগ্যান প্রেরিত শোকবার্তা উল্লেখ করে বলেন, জিয়াউর রহমান তার কর্মযজ্ঞের মাধ্যমে বাংলাদেশের নেতা থেকে বিশ্ব নেতায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলেন। তিনি বাংলাদেশে একপ্রান্ত থেকে আরে প্রান্তে ঘুরে দেশকে উন্নয়নের শিখরে নিয়ে যাওয়ার রাস্তা তৈরী করেছিলেন এবং একইভাবে বিশ্ব শান্তি ও সৌহার্দ্য প্রতিষ্ঠায় এক দেশ থেকে আরেক দেশ ছুটে গেছেন।

সাবেক কমিশনার আনিস আহমেদ বলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বাংলাদেশে উন্নয়ন ও উৎপাদনের রাজনীতির সূচনা করেছিলেন। তিনি বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রবর্তনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে সকল দল ও মতের রাজনীতির সুযোগ অবারিত করেছিলেন। বিশ্বসভায় বাংলাদেশ পরিচিতি পেয়েছিলো তার মাধ্যমে। গোটা বিশ্ব আজও শহীদ জিয়ার অভাব তীব্রভাবে অনুভব করে। ‘জিয়াউর রহমান ওয়ে’ নামকরণ তার প্রতি সম্মানের বহিঃপ্রকাশ বলে উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান জিল্লু, সচিব মিজানুর রহমান মিল্টন ভুইয়া, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ও মূলধারার রাজনীতিক গিয়াস আহেমদ, শরাফত হোসেন বাবু, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মোস্তফা কামাল পাশা বাবুল, সাবেক কোষাধ্যক্ষ জসিম উদ্দিন ভূঁইয়া, বিএনপির স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুস সবুর, জসিম উদ্দীন ভুইয়া, যুবদল কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম সম্পাদক মাসুদ আহমেদ মিলন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন যুগ্ম আহবায়ক ও প্যানসিলভেনিয়ার বিএনপি সভাপতি শাহ ফরিদ,

যুগ্ম আহ্বায়ক ও যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবু সাইদ আহমদ, যুগ্ম আহ্বায়ক ও যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মাকসুদুল হক চৌধুরী, যুগ্ম আহ্বায়ক সেলিম রেজা, মোশাররফ সবুজ, ওয়াশিংটন ডিসি বিএনপির মজনু মিয়া, জাকির হোসেইন, তুহিন ইসলাম, আরিফুল ইসলাম, মোখলেসুর রহমান লিটন, ভার্জিনিয়া বিএনপির জহির খান, নেসার আহমেদ, জহির খান, জাহিদ, জাসাস কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক গোলাম ফারুক শাহিন, মেরিল্যান্ড বিএনপির শাহিদ চৌধুরী, সেলিম আহমেদ, কবিরুল ইসলাম, মিজানুর রহমান যুক্তরাষ্ট্র জাসাসের সভাপতি আবু তাহের, যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক দলের সভাপতি জাহাঙ্গীর এম আলম, মাহফুজুল মওলা নান্নু, নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান সাইদ, যুক্তরাষ্ট্র জাসাসের সাধারণ সম্পাদক কাউসার আহমেদ, যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিকদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তাক আহমেদ,

লংআইল্যান্ড বিএনপির উপদেষ্টা রিয়াদ মাহমুদ, শ্রমিক দলের সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির, ব্রুকলিন বিএনপির সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সালেহ মানিক, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক নাসিম আহমেদ, যুগ্ম আহ্বায়ক আমানত হোসেন আমান, যুগ্ম আহ্বায়ক শহিদুল হক শিকদার, সিনিয়র যুগ্ম সদস্য সচিব মোশাররফ হোসেন সবুজ, যুগ্ম সদস্য সচিব এজিএম জাহাঙ্গীর হাসাইন, যুগ্ম সদস্য সচিব মোতাহার হোসেন, যুগ্ম সদস্য সচিব সাইদুর খান ডিউক, যুগ্ম সদস্য সচিব মাইনুদ্দীন আহমেদ, এস এম ফেরদৌস, যুগ্ম সদস্য সচিব কামাল উদ্দীন দিপু, যুগ্ম সদস্য সচিব হাবীবুর রহমান হাবীব, উদযাপন কমিটির উপদেষ্টা জামিলুর রহমান চৌধুরী, ড. নুরুল আমীন পলাশ, গোলাম হোসেন, জাতীয়তাবাদী ফোরাম নেতা মাহবুবুর রহমান মুকুল, যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদল নেতা শাহবাজ আহমেদ ফরিদ খোন্দকার, তোফায়েল আহমেদ প্রমুখ।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com