সোমবার, ২৭ Jun ২০২২, ০৩:১৪ অপরাহ্ন

আফতাব আহমেদের পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান কোচের দায়িত্ব সৈয়দ রাসেল

আফতাব আহমেদের পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান কোচের দায়িত্ব সৈয়দ রাসেল

কয়েকদিন আগেই যুক্তরাষ্টের ঘরোয়া ক্রিকেট লিগের একটি দলের কোচ হওয়ার প্রস্তাব পেয়েছেন আফতাব আহমেদ। অন্তত চার মাস সেই দলের কোচিং করাতে রাজিও হয়েছেন বাংলাদেশের সাবেক এই ব্যাটার।

আফতাবের পর এবার কোচ হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন সৈয়দ রাসেল। মিশিগানের ক্রিকেট একাডেমি অব ডেট্রোয়েটের প্রধান কোচ হিসেবে কাজ করবেন সাবেক এই পেসার। একাডেমির সঙ্গে তিন মাসের চুক্তির বিষয়টি ক্রিকফ্রেঞ্জিকে নিশ্চিত করেছেন রাসেল।

বাংলাদেশের হয়ে যে কয়জন বাঁহাতি পেসার খেলেছেন তাদের মধ্যে অন্যতম সম্ভাবনাময়ী ছিলেন রাসেল। কিন্তু সেই তুলনায় আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার খুব বেশি লম্বা করতে পারেননি তিনি।২০০৫ সালে বাংলাদেশের জার্সিতে অভিষেকের পর খেলেছেন ২০১০ সাল পর্যন্ত। প্রায় পাঁচ বছরের ক্যারিয়ারে তিন সংস্করণ মিলিয়ে ম্যাচ খেলেছেন মোটে ৬৬টি।

জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পর দীর্ঘদিন খেলেছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে। তবে ২০১৫ সালে কাঁধের চোটে পড়েন তিনি। এ কারণে প্রায় দুই বছর বাইশ গজের বাইরে ছিলেন এই বাঁহাতি পেসার।এরপর সেই চোট কাটিয়ে আবারও ক্রিকেটে ফিরলেও বেশিদিন আর খেলা চালিয়ে যাননি। ২০১৮ মৌসুমের পর আর ক্রিকেটে দেখা যায়নি তাকে।

এরপর ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে মাস্কো সাকিব ক্রিকেট একাডেমিতে কোচ হিসেবে যোগ দেন তিনি। গত প্রায় এক বছর ধরে সেখানে বোলিং কোচ হিসেবে কাজ করছেন তিনি। আর এবার তিন মাসের জন্য সুযোগ পাচ্ছেন দেশের বাইরে কাজ করার। এবারই প্রথম হেড কোচ হিসেবে কাজ করতে যাচ্ছেন তিনি।

ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার সবধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়ে গেছে। এ মাসের শেষের দিকে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দ্যেশে রওনা দেবেন রাসেল। প্রায় তিন মাসের কাজ শেষে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর আবারও দেশে ফেরার কথা রয়েছে তার।

ক্রিকফ্রেঞ্জির সঙ্গে আলাপকালে রাসেল বলেন, ‘মিশিগানের ক্রিকেট একাডেমি অব ডেট্রোয়েট হেড কোচ হিসেবে কাজ শুরু করতে যাচ্ছি। যাওয়ার জন্য সবকিছু প্রস্তুত আছে। জুনের ২৬ তারিখ যাবো। সেখানে সপ্তাহে ৫ দিন আমি কোচিং করাবো। তাদের সঙ্গে ৩ মাস কাজ করবো। এরপর ৩০ সেপ্টেম্বর দেশে ফিরবো।’

মিশিগানের এই ক্রিকেট একাডেমির সঙ্গে রাসেলের সম্পর্কটা অবশ্য পুরোনো। এই একাডেমির একটি দলও আছে। সেই দলের হয়ে বেশ কয়েকবার খেলতে গিয়েছিলেন তিনি। তাই কোচ হিসেবে এই একাডেমিতে প্রথমাবার গেলেও সম্পর্কটা নতুন নয়।

এ প্রসঙ্গে রাসেল বলেন, ‘এই অ্যাকাডেমির একটি দলও আছে। সেখানে আমি বেশ কয়েকবার খেলেছি। তাই তাদের সঙ্গে আমার সম্পর্কটা পুরোনো।’যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফিরে আবারও মাসকোতে বোলিং কোচ হিসেবে কাজে যোগ দেবেন রাসেল। একাডেমি থেকে অনুমতি নিয়ে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন।তিনি বলেন, ‘আমেরিকা থেকে ফিরে আবারও মাসকোতে কাজ শুরু করবো। মাসকোর সঙ্গে আলোচনা করেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তাদের অনুমতি নিয়েই আমেরিকায় যাচ্ছি।’

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2022 banglaekattor.com