প্যারালাইজড রো’গী ও মৃত ব্যক্তি হা’মলা চালিয়ে ভে’ঙেছে নৌকা প্রার্থীর বাড়িঘর! - বাংলা একাত্তর প্যারালাইজড রো’গী ও মৃত ব্যক্তি হা’মলা চালিয়ে ভে’ঙেছে নৌকা প্রার্থীর বাড়িঘর! - বাংলা একাত্তর

শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:০৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
প্যারালাইজড রো’গী ও মৃত ব্যক্তি হা’মলা চালিয়ে ভে’ঙেছে নৌকা প্রার্থীর বাড়িঘর!

প্যারালাইজড রো’গী ও মৃত ব্যক্তি হা’মলা চালিয়ে ভে’ঙেছে নৌকা প্রার্থীর বাড়িঘর!

নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় মৃ’ত ব্যক্তি হা’মলা চা’লিয়ে ভে’ঙেছে নৌকা প্রার্থীর বাড়িঘর ও আসবাবপত্র। শুনলে কিছুটা অবিশ্বাস্য হলেও মৃ’ত ব্যক্তির বি’রুদ্ধে এমন গায়েবি অ’ভিযোগ এনে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে হ’য়রানি করতে থানায় দ্রুতবিচার আইনে মা’মলা দা’য়ের করেছে নৌকা প্রার্থীর ভাগ্নে শাহ আরেফিন রুমন।

গত বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) গভীর রাতে কেন্দুয়া উপজে’লার ১২নং রোয়াইলবাড়ি আমতলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ নাজমুল হকের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।এঘটনায় শুক্রবার রাতে শেখ নাজমুল হকের ভাগ্নে শাহ আরেফিন রুমন বা’দী হয়ে ৫২ জনের নাম উল্লেখ করে কেন্দুয়া থানায় একটি মা’মলা দা’য়ের করেন। ওই মা’মলায় অ’জ্ঞাত আ’সামি করা হয় আরো ১২০ জনকে।

মা’মলার আ’সামিরা হলেন, একই ইউনিয়নের স্বতন্ত্রপ্রার্থী লুৎফর রহমান আকন্দের ছোট ভাই, চাচাতো ভাই, আত্মীয়-স্বজন ও কর্মী-সমর্থক এবং ইউনিয়নের ফতেপুর, কৈলাটি ও দ্বিগর গ্রামের বাসিন্দারা যারা স্বতন্ত্র প্রার্থীকে সমর্থন করছে। মা’মলার ২৫নং আ’সামি করা হয়েছে ফতেপুর গ্রামের মৃ’ত ইছব আলী ছেলে মো. রহিমকে (৫৪)। তিনি গত ২০২১ সালের ২৭ আগস্ট মা’রা যান।

এ ছাড়া ৪৩নং আ’সামি একজন প্যারালাইজড রো’গী। তিনি দীর্ঘদিন ধরে শয্যাশায়ী অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ২০নং আ’সামি বেশ কিছু দিন ধরে রংপুর এলাকায় অবস্থান করছেন। এ ছাড়া ৪৭ ও ৪৮নং আ’সামি একই ব্যক্তি জানিয়েছেন গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আসাদুজ্জামান। প্যারালাইজড রো’গী ও মৃ’ত ব্যক্তিকে আ’সামি করে মা’মলা দা’য়ের ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

মা’মলার অ’ভিযোগে বা’দী আরটিভি নিউজকে বলেন, তিনি রোয়াইলবাড়ী আমতলা ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শেখ নাজমুল হকের আপন ভাগ্নে। তার মামাকে নৌকা প্রতীক দেয়ায় শ’ত্রুতা পোষণ করতে থাকে। এরই জের হিসেবে আমি ও মামা প্রচারণা কাজে ব্যস্ত হয়ে যাই। এই সুযোগে এজহারে বর্ণিত ও অ’জ্ঞাতনামা আ’সামিরা পূর্বপরিকল্পনা মতে ঘটনার সময় চাইনিজ কুড়াল, চা’পাতি, লো’হার হেমার, হকিস্টিক, কিরিচ, ধা’রালো রাম’দাসহ দেশি অ’স্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অতর্কিতভাবে অ’স্ত্রের মহড়া প্রদর্শন করে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে জনমনে আ’তঙ্ক সৃষ্টি করে।

এ ছাড়া এলোপাতাড়িভাবে কু’পিয়েছে বসতঘরের দরজা, জানালা, রঙিন টেলিভিশন, চেয়ার-টেবিল, স্টিলের আলমারিসহ আসবাবপত্র ভা’ঙচুর করে, যাতে আড়াই লাখ টাকা ক্ষ’তি হয়। দুই লাখ ২৫ হাজার টাকার মালামাল লু’ট করে নিয়ে যায় আ’সামিরা।

এঘটনায় প্রতিদ্ব’ন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থী লুৎফর রহমান আকন্দ জানান, প্যারালাইজড রো’গী ও মৃ’ত ব্যক্তি রাতের আঁধারে গিয়ে একজন চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়িতে হা’মলা চালাবে দুনিয়ার কোন মানুষ বিশ্বাস করবে? আর তা কি সম্ভব। তিনি ভোটে হেরে যাবেন এমন আ’শঙ্কা থেকে আমার কর্মীদের ও’পর হা’মলা চা’লিয়ে মা’রধর করে উল্টো একটি মি’থ্যা মা’মলা চা’পিয়ে দিয়ে মাঠ ও কেন্দ্র দ’খলের পায়তারা চালাচ্ছেন। আমি ও আমার সমর্থকরা যেন নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা না করতে পারে তাই এই মি’থ্যা মা’মলার আয়োজন।

কেন্দুয়া থানা ওসি কাজী শাহনেওয়াজ আরটিভি নিউজকে বলেন, বা’দীর লিখিত অ’ভিযোগের ভিত্তিতে থানায় মা’মলা দা’য়ের করা হয়েছে। ত’দন্ত সাপেক্ষে মৃ’ত ও রো’গী ব্যক্তি বি’ষয়ে জানা যাবে। আ’সামিদের গ্রে’প্তারে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। সূত্রঃ আরটিভি নিউজ

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com