৯০ শতাংশ মানুষ বিশ্বাস করে ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচ পাতানো ছিল - বাংলা একাত্তর৯০ শতাংশ মানুষ বিশ্বাস করে ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচ পাতানো ছিল - বাংলা একাত্তর

সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৮:২৫ অপরাহ্ন

৯০ শতাংশ মানুষ বিশ্বাস করে ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচ পাতানো ছিল

৯০ শতাংশ মানুষ বিশ্বাস করে ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচ পাতানো ছিল

আজ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি হবে আফগানিস্তান ও নিউজিল্যান্ড। ম্যাচটার গুরুত্ব বাড়িয়ে দিয়েছে আফগানিস্তান ও ভারত ম্যাচ। ভারতের কাছে আফগানদের বিশাল হারের কারণেই এখন রানরেটে সুবিধাজনক অবস্থায় চলে এসেছে ভারত। ফলে আজ আফগানরা নিউজিল্যান্ডকে হারালে লাভ যতটা না হবে রশিদ খানদের, তার চেয়েও বেশি হবে ভারতের। কারণ, কাল সহজ প্রতিপক্ষ নামিবিয়াকে হারালেই তখন সেমিফাইনালে চলে যাবে ভারত।

পাকিস্তান সেমিতে পা দিয়েই রেখেছে। কিন্তু তাদের এখন সব চিন্তা ভারতকে নিয়ে। নিজেদের ভালোর চেয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের হতাশা দেখতেই যে ভালো লাগে বেশি। ফলে ভয়ংকরভাবে বিশ্বকাপ শুরু করেও ভারতের সেমিফাইনালে যাওয়ার পথ খুলে যাওয়াটা মেনে নিতে পারছেন না অনেকেই। শোয়েব আখতার তেমনই একজন। সাধারণত ভারতীয় ক্রিকেটারদের প্রশংসা করলেও গতকাল বলেছেন, নিউজিল্যান্ড আফগানিস্তানের কাছে হেরে গেলে প্রশ্ন উঠবে। এবং ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচের ফলও যে সন্দেহজনক ছিল, সেটা মনে করিয়ে দিয়েছেন সাবেক ফাস্ট বোলার।

ভারতের বিপক্ষে আফগানিস্তানের বেশ কিছু সিদ্ধান্ত প্রশ্নবিদ্ধ ছিল। টসে জিতে আফগানিস্তান বোলিং বেছে নিয়েছিল। অথচ এ দলটি যেকোনো কন্ডিশনে আগে ব্যাট করতে পছন্দ করে। টি-টোয়েন্টিতে এর আগে ৪৩ ম্যাচে টসে জিতে ৩৪ বারই ব্যাট করেছে আফগানিস্তান। এই বিশ্বকাপে সবাই যখন ফিল্ডিং করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছিল, তখনো নিজেদের পরিকল্পনা থেকে সরেনি তারা। সেটাই স্বাভাবিক। কারণ, টস জিতে সবশেষ তাদের ব্যাটিং করার ঘটনা ২০১৯ সালের। ‘ঘরের মাঠ’ লক্ষ্ণৌতে সে ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হারের পর আর এমন কিছু করার চেষ্টা করেনি দলটি।

সেই আফগানরাই ভারতের বিপক্ষে ফিল্ডিং বেছে নেওয়ায় প্রশ্ন ওঠাটা স্বাভাবিক। পরে ব্যাট করার এমন সিদ্ধান্তের পেছনে অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী কারণ দেখিয়েছিলেন শিশিরকে। বলেছিলেন শিশিরে স্পিনারদের বল ধরতে সমস্যা হবে তাই এই সিদ্ধান্ত। দলে মুজিব উর রেহমান না থাকায় সেদিন স্পিনার ছিলেন রশিদ খান, বাঁহাতি স্পিনার শরাফউদ্দিন আশরাফ ও নবী নিজে।

রশিদ নিজের ৪ ওভারের কোটা পূরণ করেছেন।। কিন্তু ২ ওভারে ২৫ রান দিয়েছেন শরাফ। ওদিকে নবী নিজে ১ ওভার বল করেছেন। তাতে মাত্র ৭ রান দিয়েছেন, তবু পরে আর বোলিংয়ে যাননি। অর্থাৎ স্পিনারদের বল ধরতে সমস্যা হবে ভেবে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়ে নিজেই আর বোলিং করেননি নবী।

সে ম্যাচে ভারত প্রথমে ২১০ রান তুলে। জবাবে ধুঁকতে থাকা আফগানিস্তানকে ১৪৪ রান এনে দেন করিম জানাত। শুক্রবার ভারত স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে নেট রানরেটে সবাইকে টপকে যাওয়ার পর জিও টিভির ক্রিকেটভিত্তিক অনুষ্ঠান ‘জশনে ক্রিকেটে’র সঙ্গে কথোপকথনে শোয়েব আখতার ভারত-আফগানিস্তান নিয়ে কথা বলেছেন। সে ম্যাচের ফল নিয়ে নিজের সন্দেহ সরাসরি জানাননি। তবে নিজের মনের সন্দেহটা প্রকাশ করেছেন অন্যভাবে। বলেছেন, ‘৯০ শতাংশ মানুষ বিশ্বাস করে ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচ পাতানো ছিল।’

শোয়েব অবশ্য ভারতের সেমিফাইনালে ওঠায় পাকিস্তানের কোনো সমস্যা খুঁজে পাচ্ছেন না। কারণ, তাঁর মনে হচ্ছে ভাগ্যক্রমে সেমিফাইনাল ও ফাইনালে উঠলেও লাভ হবে না ভারতের, ‘আমরা ফাইনালে ভারতকে ধ্বংস করে দেব।’ সূত্রঃ প্রথম আলো

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com