মুসলিম তরুণের সাথে প্রেম, ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন হিন্দু তরুণী - বাংলা একাত্তরমুসলিম তরুণের সাথে প্রেম, ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন হিন্দু তরুণী - বাংলা একাত্তর

শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৫৩ পূর্বাহ্ন

মুসলিম তরুণের সাথে প্রেম, ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন হিন্দু তরুণী

মুসলিম তরুণের সাথে প্রেম, ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন হিন্দু তরুণী

প্রেমের টানে হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম গ্রহণ করেছেন এক কলেজছাত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে। এফিডেভিটের মাধ্যমে সুবিদখালী সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী জয়ন্তী রানী মালা (১৮) বিয়ে করেছেন মির্জাগঞ্জের পূর্ব সুবিদখালী গ্রামের মুসলমান যুবক মো: খোকন খানকে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার পর তিনি তার নাম রেখেছেন ফাতেমা বেগম। এ দিকে ওই তরুণীর কোনো খোঁজ না পাওয়ায় কলেজছাত্রীর বাবা সুনীল কুমার শীল মুসলিম যুবককে প্রধান ও ছয়জনকে আসামি করে মির্জাগঞ্জ থানায় বৃহস্পতিবার রাতে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। পরে ওই রাতেই খোকনের চাচা মো: আজিজ খানকে উপজেলার পূর্ব সুবিদখালী নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

এলাকাবাসী ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কাকড়াবুনিয়া ইউনিয়নের কিসমতপুর গ্রামের সুনীল কুমার শীলের মেয়ে সুবিদখালী সরকারি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী জয়ন্তী রানী মালা মায়ের সাথে উপজেলা সদর সুবিদখালীতে ভাড়া বাসায় থেকে লেখাপড়া করতেন। এসময় পূর্ব সুবিদখালী গ্রামের মো: খোকনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

পরবর্তীতে দীর্ঘ ৩ বছরের অধিক সময়ের সম্পর্কের একপর্যায়ে পরিবারের লোকজনের অজান্তে মালা গত বৃহস্পতিবার বিকেলে বরিশাল জেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে এফিডেভিটের মাধ্যমে হিন্দু ধর্ম থেকে ধর্মান্তরিত হন এবং বরিশাল জেলা চৌমাথা বাজার নিকাহ্ রেজিস্ট্রার কার্যালয় থেকে ধর্মান্তরিত তরুণী ফাতেমা বেগম ও মো: খোকন খানকে বিয়ে করেন।

তবে, ধর্মান্তরিত ওই তরুণীর বাবা সুনীল কুমার শীল জানান, তার মেয়েকে অপহরণ করা হয়েছে। তবে তার মেয়ে ধর্মান্তরিত হয়েছে কিনা এ বিষয়ে নিশ্চিত নন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত খোকন খানের বড় ভাই ইমরান খাঁন জানান, আদালতে এফিডেভিটের মাধ্যমে হিন্দু ধর্ম ধর্মান্তরিত হয়ে মুসলিম ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী আমার ভাইয়ের সাথে বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এর বেশি কিছু জানি না।

মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: মহিবুল্লাহ এ বিষয়ে জানান, কলেজছাত্রী অপহরণের ঘটনায় ছয়জনকে আসামি করে করেছেন তার বাবা। প্রাথমিক তদন্তে ওই তরুণী হিন্দু ধর্ম থেকে মুসলিম ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়ার বিষয়টি জানা গেছে। এজাহারভুক্ত ৫ নম্বর আসামি ওই যুবকের চাচা আজিজ খাঁনকে আটক করা হয়েছে। ভিকটিককে উদ্ধারসহ বাকি আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com