গ্রাম্য শালিসে পরকিয়ার বিজয়, বদলে দেয়া হলো স্বামী - বাংলা একাত্তরগ্রাম্য শালিসে পরকিয়ার বিজয়, বদলে দেয়া হলো স্বামী - বাংলা একাত্তর

শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন

গ্রাম্য শালিসে পরকিয়ার বিজয়, বদলে দেয়া হলো স্বামী

গ্রাম্য শালিসে পরকিয়ার বিজয়, বদলে দেয়া হলো স্বামী

তিন বছর ধরে স্বমীর ঘরে থেকে পরকিয়া আর গোপনে প্রেমিকের সাথে শারীরিক সম্পর্কের সকল তথ্য ফাস করে তিনদিন যাবত বিয়ের দাবীতে অনশন করছিলেন উপজেলার দাড়িগাছা গ্রামের জাহিদুর রহমানের মেয়ে জাহানারা বেগম (২৫)। সে ওই গ্রামের এমাদাদুল হকের স্ত্রী এবং এক সন্তানের জননী।

বিষয়টি নিয়ে ২৭ সেপ্টেম্বর এলাকার গ্রাম্য মাতব্বরদের নিয়ে খরনা ইউপি সদস্য তোতা মিয়া এক সালিশ বৈঠকের আয়োজন করে। ওই বৈঠকে তার পরকিয়া প্রেমিক তালেব এর সাথে বিয়ে পড়িয়ে দেয়া হয়। স্বামী বদলের এ ঘটনায় নারীর পরকিয়ার বিজয় হয়েছে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

এবিষয়ে ওই ইউপি সদস্য তোতা মিয়া জানান, দীর্ঘদিন দুজনে শারীরিক সম্পর্ক ও পরকিয়ায় আশক্ত হওয়ায় বিয়ে পড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এ সংবাদ জানার পর কাদছে তার স্বামী ও সন্তান। তাদের আর্তনাদে ভারী করে তুলেছে আাকাশ বাতাস। আর স্থানীয়রা জানান, এতে করে অপকর্ম আর পরকীয়াকে বিজয়ী করা হয়েছে।

প্রেমিকা জাহানারা জানায়, স্বামী ব্যাবসা করার সুবাদে বাড়িতে আসা-যাওয়া করতো পাশের বাড়ীর আবদুল লতিফের ছেলে আবু তালেব (২৩)। সে অনার্স পাশ করার পর তার স্বামীর সাথে বন্ধুত্ব গড়ে তোলে এবং ব্যাবসাও করে। তালেব অবিবাহিত। এভাবে সময়ে অসময়ে বাড়িতে যাতায়াতের এক পর্যায়ে তার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

দিনে দিনে এ সম্পর্ক শারীরিক সম্পর্কে পরিনত হয় এবং বেশীরভাগ দিনে স্বামী ব্যাবসায়িক কাজে বাইরে থাকায় প্রায় রাতেই প্রেমিক তালেব তার সাথে রাত্রীযাপন করে। এছাড়াও বিয়ের প্রলোভন দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় নিযে গিয়ে তার সাথে দৈহিক মেলামেশা করেছে। এমনকি গত তিনদিন ধরে তার ঘরে রাত্রীযাপন করেছে। তাই মাতব্বরা বিয়ে পড়িয়ে দিয়েছে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com