সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৭:১২ পূর্বাহ্ন

ছেলের বিয়ের দিন মা জানলেন কনে তার হারিয়ে যাওয়া মেয়ে

ছেলের বিয়ের দিন মা জানলেন কনে তার হারিয়ে যাওয়া মেয়ে

একজন মা সবচেয়ে ভালোবাসেন তার সন্তামকে। কিন্তু সেই সন্তান হারিয়ে গিয়েছিলো প্রায় ২০ বছর আগে। সময়ের সাথে একমাত্র মেয়েকে হারানোর শোক কাটিয়ে উঠতে পারলেও পুরোপুরি ভুলে যাননি সন্তানকে। এখানে ওখানে মায়ের চোখ সবসময়ই মেয়েকে খুঁজে বেড়াতো।

এরই মধ্যে বড় হয়ে উঠে ছেলে। মা নিজেই সেই ছেলের বিয়ে ঠিক করেন। কিন্তু ঝামেলা বাঁধে ছেলের বিয়ের দিন। বিয়ের আসরে যিনি বউমা হতে চলেছেন জানা গেলো সেই পাত্রী নাকি তার হারিয়ে যাওয়া মেয়ে! সম্প্রতি চীনের জিয়াংশু প্রদেশের সুঝাউ এলাকায় ঘটেছে এই ঘটনাটি।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, অত্যন্ত আড়ম্বরপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছিল ছেলের বিয়ে। চলে এসেছিলেন অতিথিরাও। এরমধ্যেই কনের সাজে সবার সামনে এলেন পাত্রী। বউমার মুখ দেখে ওই মায়ের মনে হতে লাগলো এ তো হারিয়ে যাওয়া তারই মেয়ের মতোই! এরপর ভালো করে কনেকে দেখতে লাগলেন তিনি। দেখলেন তার মুখে হারিয়ে যাওয়া মেয়ের মতই একটা জন্মদাগ রয়েছে। সাথে সাথেই কনের বাবা-মাকে ডেকে সত্যটা জানতে চান তিনি।

প্রথমে ওই মেয়ের বর্তমান বাবা-মা মুখ খুলতে না চাইলেও এক পর্যায়ে স্বীকার করে নেন, বেশ কয়েক বছর আগে রাস্তায় কুড়িয়ে পেয়েছিলেন মেয়েটিকে। তারপর নিজেদের সন্তান হিসেবেই তাকে বড় করেন। বিয়েবাড়িতে তখন হুলস্থুল কাণ্ড। গোটা বিষয়টি জানানো হয় কনেকেও। সব শুনে নিজেকে আর সামলে রাখতে পারেননি তিনি। জন্মদাত্রীকে পেয়ে কান্নাকাটি শুরু করে কনে।

এরপরে শুরু হয় নতুন ঝামেলা। কারণ ভাই-বোনের তো আর বিয়ে সম্ভব নয়। আর তখনই বের হয়ে আসে আরেকটি বড় সত্যি। মেয়ে হারানো ওই মা জানান, যার সাথে মেয়েটির বিয়ে ঠিক হয়েছে সে ছেলেরও জন্মদাত্রী মা তিনি নন! প্রায় দুই দশক আগে মেয়ে হারানোর পর এ ছেলেটিকে দত্তক নিয়েছিলেন তিনি এবং তাকে একদম নিজ সন্তানের মতো করেই বড় করে তুলেছেন। ফলে ভাই-বোনের আর কোনো প্রশ্নই নেই। ফের শুরু হয় বিয়ের অনুষ্ঠান এবং দিনভর নানা বাধা-বিঘ্ন টপকে শেষ পর্যন্ত চারহাত এক হয়।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com