মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৫৫ পূর্বাহ্ন

গরু চু’রিতে ‘সফলতা’ পেয়ে নামেন অটোরিকশা চু’রিতে, এখন তিনি কোটিপতি!

গরু চু’রিতে ‘সফলতা’ পেয়ে নামেন অটোরিকশা চু’রিতে, এখন তিনি কোটিপতি!

ছোট বেলা থেকেই নাম তার ‘ইয়াছিইন্যা চোর’। তাই প্রকাশ্যে এলেও শীত-গরম সব সময় মাফলার পেঁ’চিয়ে রাখতেন নাকে মুখে। যেন কেউ তাকে চিনতে না পারে। পরিবারে বংশাণুক্রমেই আয় রোজগারের পথ ছিল দিনমজুরি ও রিকশা চা’লানো। কিন্তু হঠাৎ সেই পেশা ছেড়ে দিয়ে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে জড়িয়ে পড়েন গরু চু’রিতে। গরু চু’রিতে ‘সফলতা’ পেয়ে নামেন অটোরিকশা চু’রিতে। চালককে অ’চেতন করে এমনকি হ’ ‘ত্যা করেও হাতিয়ে নেন অটোরিকশা।

পরিবারের প্রায় সকলেই কোনো না কোনোভাবে চু’রি পেশার সঙ্গে জ’ড়িত। বারবার ধরা খেলেও বিভিন্ন ফাঁকফোকর দিয়ে বেড়িয়ে পড়েন। ফের দাপটের সঙ্গে চু’রি কর্মে নেমে পড়েন। দীর্ঘদিন পর গতকাল মঙ্গলবার রাতে ধরা পড়েছেন ইয়াছিন। তবে তাকে আ’দালতে না পাঠিয়ে অ’ভিযানের নামে এখনো থানায় আ’টক রাখা হয়েছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার তাকে আ’দালতে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গত সোমবার রাতে গো’পন সংবাদের ভিত্তিতে কি’শোরগঞ্জ শহর থেকে অটোরিকশাসহ তাকে আ’টক করা হয়। এরপর তাকে থানায় রাখা হয়েছে। তাকে নিয়ে এলাকার বিভিন্ন জায়গায় অ’ভিযান চা’লানো হচ্ছে। সে আন্তঃজে’লা অটোরিকশা এবং গরু চু’রির সঙ্গে জ’ড়িত।

নান্দাইল থানার উপপরিদর্শক মনিরুজ্জামান বলেন, অ’ভিযান অব্যাহত আছে। তাকে নিয়ে পূর্বের চু’রির মালামালসহ তার সাঙ্গদের আ’টকের চেষ্টা করা হচ্ছে। থানা সুত্রে জানা গেছে, নান্দাইল থানা ছাড়াও আশপাশের বেশ কয়েকটি থানায় তার নামে রয়েছে একাধিক চু’রির মা’মলা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তার পুরো নাম মো. আমিনুল ইসলাম ওরফে ইয়াছিন মিয়া (৪৫)। বাড়ি ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজে’লার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের আতকাপড়া গ্রামে। বাবা ফরিদ মিয়াসহ দুই ভাই রোমান মিয়া ও জামান মিয়া এবং পাশের ঈশ্বরগঞ্জ উপজে’লার মগটুলা ইউনিয়নের ধনিয়াকান্দি গ্রামের শ্বশুর আবু ছায়েদের ছেলে শ্যালক তোফাজ্জল হোসেনসহ (৩০) পরিবারের সকলেই এখন চু’রির সঙ্গে জ’ড়িত।

পৈত্রিক ঘরটির জরাজীর্ণ থাকলেও পাশেই কয়েক লাখ টাকা ব্যয় করে নির্মাণ করা হয়েছে পাকাঘর। যা দেখে প্রতিবেশীরা ছাড়াও এলাকার লোকজন হতবাক হয়ে যায়। অনেকেই বলেন, আগে শুনতেন চোরের বাড়িতে বিল্ডিং হয় না। এখন শুধু বিল্ডিং না বিভিন্ন সড়কে চলমান বেশ কয়েকটি মাইক্রোবাস ছাড়া সিএনজি চালিত অটোরিকশা রয়েছে তাদের। রয়েছে পাশের গফরগাঁও উপজে’লায় একটি অটোরিকশা শো-রুমের শেয়ার। সব মিলিয়ে আনুমানিক কোটি টাকার সম্পত্তির মালিক ইয়াছিন চোর।

নান্দাইল থানার পুলিশ কর্মকর্তা আবুল হাসেম বলেন, তার নামে নান্দাইল থানাতেই চারটি মা’মলা রয়েছে। সবগুলোই অটোরিকশা চু’রির। সূত্রঃ কালের কণ্ঠ

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com