বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ১০:৪৯ অপরাহ্ন

টানা ১৪ মাস নামাজ কাজা হয়নি ইসলাম ধর্মগ্রহণ করা জবি শিক্ষিকার

টানা ১৪ মাস নামাজ কাজা হয়নি ইসলাম ধর্মগ্রহণ করা জবি শিক্ষিকার

ধর্মতত্ত্ব নিয়ে ২৯ বছর পড়াশোনা করে ইসলাম ধর্মগ্রহণ করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রিতু কুণ্ডু।২০১৭ সালের ১৬ মার্চ শান্তির এ ধর্মে তিনি দীক্ষিত হয়েছিলেন। তবে বি’ষয়টি সেভাবে জানাজানি হয়নি।গত ১৮ ফেব্রুয়ারি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও আপলোড করে নিজের ইসলাম ধর্মগ্রহণের দীর্ঘ যাত্রার কথা বর্ণনা করেন এ শিক্ষিকা।

সহকারী অধ্যাপক রিতু জানিয়েছেন, ইসলাম ধর্মগ্রহণের পর টানা ১৪ মাস তিনি নামাজ কাজা করেননি। এ ছাড়া সেদিন থেকে হিজাব পরা শুরু করেন তিনি।তবে ইসলাম ধর্মগ্রহণের পর নাম পরিবর্তনের বি’ষয়ে কিছুই জানাননি তিনি। জানা গেছে, রিতু কুণ্ডু তার নাম পরিবর্তন করে আদ্রিতা জাহান রিতু রেখেছেন।

ভিডিওবার্তায় এ অধ্যাপক বলেন, ‘দীর্ঘ ২৯ বছর বিভিন্ন ধর্ম নিয়ে পড়াশোনা ও জ্ঞান-বুদ্ধির আলোকে আমি ইসলামের বি’ষয়ে মাসব্যাপী পড়াশোনা শুরু করি। ১৬ দিনের মধ্যেই আমি সত্য উপলব্ধি করি এবং ২০১৭ সালের মার্চে ইসলাম ধর্মগ্রহণ করি। এই দীর্ঘ ২৯ বছর পর্যন্ত আমি নিজের পরিবার, সমাজ ও মানুষের আচার-ব্যবহার পর্যবেক্ষণ করি। এ দীর্ঘ সময় অন্যান্য প্রধান সব ধর্মের গ্রন্থাবলি পাঠ করেছি। জাপানেও এ বি’ষয়ে পড়াশোনা করি। ২০১২ সালে এসে বুঝতে পারি– এগুলো মানুষ রচিত বই (ঐশি বাণী নয়)।’

তিনি আরও বলেন, ‘দীর্ঘ ২৯ বছর পর আমি পবিত্র কোরআনের বাংলা অনুবাদ পাঠ করি। এর পাশাপাশি আমি হাদিসও পাঠ করি। সামনে কোরআনের যে সুরা আর হাদিস পেয়েছি, তাই মনোযোগ দিয়ে পড়েছি। মহান আল্লাহর নির্দেশনার কারণ ও বিধিনিষেধ নিয়ে চিন্তাভাবনা করি। কখনও এ বি’ষয়ে স্বপ্নও দেখেছি। তা হয়তো অনেকের অবিশ্বাস মনে হবে।

‘খুব ছোট থেকেই হয়তো আল্লাহ আমাকে ইসলাম কবুলের জন্য তৈরি করেছিলেন। ছোট থেকে আজ পর্যন্ত জীবনের প্রতিটি ঘটনা, শিক্ষা, প্রতিবন্ধকতা আর সমাজের অসংগতি আমাকে ধীরে ধীরে ইসলামের পথে পরিচালিত করেছে। আমি যখন বুঝতে পারলাম, আমাকে নামাজ পড়তে হবে, সেদিন থেকে টানা ১৪ মাস আমার নামাজ কাজা হয়নি। এটি আমি অহঙ্কারের জন্য বলছি না। এর পরও অফিস বা পারিপার্শ্বিক কারণে কাজা হয়েছে। তবে আল্লাহর রহমতে এখনও কোনো নামাজ (ফরজ) ছুটে যায়নি। এর পর আমি যখন অনুভব করলাম, আমাকে পর্দা করতে হবে, সেদিন থেকে আমি হিজাব পরা শুরু করি।’

পরিবার ও বন্ধু-বান্ধবের বি’রোধিতা সত্ত্বেও তিনি ইসলাম ধর্মগ্রহণের সিদ্ধান্তে অবিচল ছিলেন বলে জানান এ শিক্ষিকা।রিতু বলেন, ‘আমার পরিবার ও বন্ধুরা আমাকে এমনটি করতে মানা করে। কিন্তু আমি তাদের বলি– আমি রাসুল (সা.)-কে ভালোবাসতে পেরেছি। আমি বুঝতে পেরেছি, তিনি কেন আমাদের এত সুন্দর সুন্দর উপদেশ ও নির্দেশনা দিয়েছেন। আজ থেকে আল্লাহর কাছে আত্মসমর্পণ করলাম।’

রিতু নীলফামারী স’রকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও নীলফামারী স’রকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করেন। এর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের লোক প্রশাসন বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন।

২০১৩ সালে তিনি রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের প্রভাষক হিসেবে নিয়োগ পান। ২০১৭ সাল থেকে তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগে অধ্যাপনা করছেন।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com