fbpx

রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১২:২৪ পূর্বাহ্ন

অবশেষে চাকরি ছাড়লেন সেই প্রাথমিক শিক্ষিকা

অবশেষে চাকরি ছাড়লেন সেই প্রাথমিক শিক্ষিকা

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর পৌরসভার ২৬নং বাওয়ার কুমারজানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা তানিয়া রহমান তিন মাসের ছুটি নিয়ে দেড় বছর যাবত আমেরিকায় অবস্থান করছেন। বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশের পর চাকরির ইস্তফা দিয়েছেন তিনি।আজ বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মির্জাপুর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন।

উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, তানিয়া রহমান ২০১৯ সালের ৩ জুলাই থেকে ২ অক্টোবর পর্যন্ত ব্যক্তিগত সমস্যা দেখিয়ে স্কুল থেকে ছুটি নেন। ছুটি নিয়ে ওই বছরের ২ জুলাই সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান। এরপর থেকে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আর কোনো যোগাযোগ নেই এই শিক্ষিকার।

উপজেলা শিক্ষা অফিস থেকে একাধিকবার এ ব্যাপারে কৈফিয়ত চেয়ে তার ঠিকানায় পত্র পাঠালেও কেউ তা গ্রহণ করেননি। সর্বশেষ গত বছরের ২৩ জুলাই কৈফিয়ত চেয়ে পত্র পাঠায় উপজেলা শিক্ষা অফিস। ওই পত্রটিও কেউ গ্রহণ করেননি।১৬ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ জার্নালে ‘চাকরি টাঙ্গাইলে, প্রাথমিক শিক্ষিকা থাকেন যুক্তরাষ্ট্রে’ এই শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদটি স্থানীয় প্রশাসনসহ ওই শিক্ষিকার নজরে আসে। এরপর প্রশাসন ব্যবস্থা নেয়ার আগেই যুক্তরাষ্ট্র থেকে চাকরির ইস্তফা দেন তানিয়া রহমান।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) মির্জাপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসে তানিয়া রহমানের ইস্তফাপত্রটি এসে পৌঁছায়।এ বিষয়ে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দেলুয়ারা বেগম জানান, ওই শিক্ষিকার অনুপস্থিতির বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছিল।

মির্জাপুর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন জানান, সহকারী শিক্ষিকা তানিয়া রহমান তিন মাসের ছুটি নেন। দীর্ঘদিন বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকার বিষয়ে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি তিনি যুক্তরাষ্ট্রে চলে গেছেন। একাধিকবার পত্র দিয়েও তার কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি। তার অবস্থান সম্পর্কে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকেও অবহিত করা হয়েছিলো।

তবে, দীর্ঘ দেড় বছর পর প্রশাসন ব্যবস্থা নেয়ার আগেই তিনি তার চাকরি থেকে ইস্তফা দিয়েছেন বলে জানান শিক্ষা কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com