বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৮:৫২ পূর্বাহ্ন

এক সপ্তাহ আগে পদক পাওয়া জেলার ‘শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান’ ঘু’ষ নিয়ে কা’রাগা’রে

এক সপ্তাহ আগে পদক পাওয়া জেলার ‘শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান’ ঘু’ষ নিয়ে কা’রাগা’রে

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজে’লার নাজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান শওকত রানা লাবুকে তার পিএসসহ আশ্রয়ণ প্রকল্পে ঘর বরাদ্দে ঘুষ নেয়ার অ’ভিযোগে কা’রাগারে পাঠিয়েছেন আ’দালত।তিনি দা’রিদ্র্য বিমোচন ও সমাজসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য ঢাকা সাংস্কৃতিক সংগঠন থেকে জে’লার ‘শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান পদক’ পেয়েছেন এক সপ্তাহ আগে। তার পিএসের নাম নুরুল ইসলাম।

সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে নাটোরের চিফ জু’ডিশিয়াল ম্যা’জিস্ট্রেট মো. গোলাম ফারুক চেয়ারম্যান লাবুর জা’মিন নামঞ্জুর করে কা’রাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।শওকত রানা লাবুর আইনজীবী আজিজুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

মা’মলার এজাহার সূত্র জানায়, ২০১৭ সালে স’রকারি আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতাধীন ঘর করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বেশ কয়েকজনের কাছে ৫০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন চেয়ারম্যান শওকত রানা লাবু ও তার ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) নুরুল ইসলাম। আশ্রয় পাওয়ার আশায় নিরুপায় হয়ে ইউনিয়নের চন্দ্রপুর মাঝপাড়া (লক্ষ্মীপুর) এলাকার দিনমজুর মো. জালাল উদ্দিন শেখ ৫০ হাজার টাকা ঘুষ দেন।

তিনি এক আত্মীয়ের কাছ থেকে ওই ৫০ হাজার টাকা ঋ’ণ নিয়ে চেয়ারম্যানের পিএসের হাতে তুলে দেন। পরে ঘর না পেয়ে জালাল উদ্দিন শেখ বা’দী হয়ে গত ১ ডিসেম্বর চেয়ারম্যান শওকত রানা লাবু ও তার পিএসের বি’রু’দ্ধে গুরুদাসপুর থানায় মা’ম’লা করেন।মা’ম’লার কপি তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়েও পাঠান। তবে চেয়ারম্যান লাবু এই মা’ম’লায় হাইকোর্ট থেকে আট সপ্তাহের আগাম জা’মিন পান।

সোমবার আগাম জা’মিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় লাবু চিফ জু’ডিশিয়াল ম্যা’জিস্ট্রেট আ’দালতে হাজির হয়ে জা’মিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে আ’দালত জা’মিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কা’রাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com