বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৮:৩৬ পূর্বাহ্ন

স্ত্রী-স’ন্তানদের ষ’ড়য’ন্ত্রে নি’জ বা’ড়িতে প’রবাসী হয়ে পথে পথে ঘু’রছেন কোটিপতি আব্দুল মান্নান

স্ত্রী-স’ন্তানদের ষ’ড়য’ন্ত্রে নি’জ বা’ড়িতে প’রবাসী হয়ে পথে পথে ঘু’রছেন কোটিপতি আব্দুল মান্নান

স্ত্রী, ছেলে, মেয়ে আর জামাতার ষ’ড়যন্ত্রের শি’কার হয়ে অ’সহায় দিন যাপন করছেন বিদেশ ফেরত আব্দুল মান্নান খান। বিদেশ থেকে পাঠানো নগদ কোটি টাকা, গাড়ি, জমি সবই হা’তিয়ে নিয়েছেন স্ত্রী-কন্যা, জামাতা আর একমাত্র ছে’লে। বিদেশে উপার্জিত অর্থ ও জমি জমা ফেরত পেতে জনপ্রতিনিধিসহ স’রকারি বিভিন্ন দফতরে ঘুরছেন আব্দুল মান্নান খান।

খুলনা মহানগরীর খালিশপুর এলাকার আলমনগর রি-রুলিং মিল মসজিদের পাশে ৭৩ নম্বর বাড়ির (ইটালী বাড়ি) বাসিন্দা আব্দুল মান্নান ঢাকার বিক্রমপুরের মৃ’ত সফদার খানের ছে’লে। ভাগ্যচ’ক্রে চলে আসেন খুলনায়। বিয়ে করেন খুলনার মে’য়ে হোসনে আরা ভেলুকে। বিয়ের পর তাদের ৫ কন্যা ও একটি ছেলে হয়।

আব্দুল মান্নান জানান, সংসারে অ’ভাবের কারণে এক সময় হেঁটে চলে যান ইতালিতে। সেখান থেকে উপার্জিত অর্থ পাঠান স্ত্রীর নামে। সেই অর্থ (এক কোটি টাকার বেশী) স্ত্রী আ’ত্মসাৎ করেন। ইতালি থেকে ফিরে আসার পর স্ত্রী খা’রাপ আ’চরণ করতে শুরু করেন। টাকা ফেরত দিতে নানা তাল’বাহা’না করেন। এমনকি ভাড়াটে স’ন্ত্রা’সীদের দিয়ে মা’ রও খা’ওয়ান।

পরে বা’ধ্য হয়ে স্ত্রী’কে তা”লা’ক দেন। কিন্তু হোসনে আরা ভেলু সেই তা”লা’ক গ্রহণ না করে নি’ র্যা’তন মা’ম’লা দা”য়ের করেন মান্নানের নামে। সেই মা’ ম’লা থেকে বেকসুর খা’লাস পান মান্নান।

শুধু তাই নয়, তার বড় মে’য়ে জাহা’নারা বেগম ও জামাতা মশিউর রহমান বাবু ষ’ড়য’ন্ত্র করে দ’খ’ল করে নেন খালিশপুরের বাড়িটি। এছাড়া ঝিনাইদহের হাট গোপালপুরের ৯২ শতক জমির মধ্যে ৮৫ শতক জমি নিয়েছেন স্ত্রী ও মেজ মে’য়ের জামাতা। সাড়ে ১৭ শতক জমির ও’পর নির্মিত বাড়িও নিয়েছেন সেই জামাতা ইব্রাহিম। বড় জামাতা মশিউর রহমান বাবু ও ছেলে আলিমুদ্দিন খান জো’র জ’বরদস্তি করে খালিশপুরের বাড়ির বড় একটি অংশ লিখে নিয়েছেন।

স্থানীয়ভাবে মি’মাংসা করার জন্য ওয়ার্ড কা’উন্সিলরসহ বিভিন্ন স্থানে ধর্’ণা দিয়েও কোনো ফল পা’ননি। জমি ফিরে পেতে আব্দুল মান্নান আ’দা’লতে মা’ম’লা করেছেন। ২০১৭ সালে খালিশপুরের বাড়ি থেকে মে’য়ে জা’মাতাকে উ’চ্ছে’দ করতে মা’ম’লা দা’য়ের করেন তিনি।

আব্দুল মান্নান জানান, ঢাকায় তার একটি গাড়ি চলতো, সেই গাড়িও বিক্রি করে দিয়েছেন স্ত্রী ও জামাতা। কিন্তু গাড়ি বিক্রির কোনো টাকাই তাকে দেননি। স্ত্রী হোসনে আর ভেলুকে তা’লা’ক দিলেও ছে’লে ও মে’য়েরা জো’র করে আবারও বাড়িতে উ’ঠিয়ে দিয়েছে।

আব্দুল মান্নান জানান, নিজের বাড়িতেই এখন পরবাসীর মতো বসবাস করছেন তিনি। তার কাছ থেকে জো’র করে জমি লিখে নিলেও খাজনা, বিদ্যুৎ বিল তিনিই পরিশোধ করছেন। তিনি তার জমি ফেরত চান।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com