খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না জায়েদ খানকে!

| আপডেট :  ৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৩৯ অপরাহ্ণ | প্রকাশিত :  ৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৩৯ অপরাহ্ণ

বাংলা সিনেমার আলোচিত অভিনেতা জায়েদ খান।ক’দিন আগেও দেশের বিনোদনপাড়ায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন তিনি। শিল্পী সমিতির নির্বাচন কেন্দ্র করে মামলা, হামলা ও ঝামেলায় গণমাধ্যম থেকে সামাজিক মাধ্যমে চর্চিত নাম ছিল জায়েদ খান। এরপর মৌসুমী-ওমর সানির ইস্যুতে তো দেশব্যাপী আলোচনার ঝড় ওঠে।

কিন্তু সেই জায়েদ খানকে কোথাও পাওয়া যাচ্ছে না।সিনেমার শুটিং, এফডিসি কিংবা চলচ্চিত্রের বিভিন্ন অনুষ্ঠান, কোথাও তাকে দেখা যায় না। কোথায় জায়েদ খান, এ নিয়ে শোবিজ অঙ্গনে আলোচনা হচ্ছে রীতিমতো।

শিল্পী সমিতির নির্বাচন ও শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক থাকাকালীন এফডিসিতে জায়েদ খানের পদচারণা ছিল চোখে পড়ার মতো। কিন্তু শিল্পী সমিতির নির্বাচনের পর বিজয়ী জায়েদ খানের পদের স্থিতবস্থা জারির পর থেকে এ অভিনেতা আর এফডিসিতে আসেন না।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, অভিনেতা জায়েদ খান তার নিজ এলাকা পিরোজপুরের মাছিমপুরে। ব্যক্তিগত কাজে বেশ কিছুদিন থেকেই তিনি সেখানে অবস্থান করছেন। শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) এক ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে জানা যায়, শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবর জিয়ারত করেছেন। জিয়ারতের একটি ছবি তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেন। বর্তমানে জায়েদ খান কী করছেন, এবং কোথায় আছেন তা জানে না এফডিসির তেমন কেউ। মুঠোফোনেও পাওয়া যাচ্ছে না তাকে।

‘ভালবাসা ভালবাসা’ ছবির মাধ্যমে ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় এই নায়ক ২০০৬ সালে চলচ্চিত্রে পাড়ি জমান। এখন পর্যন্ত জায়েদ খান ২৫টিরও বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন। প্রথম দিকে জায়েদ খান সহনায়ক হিসেবে চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও ২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘বাংলা ভাই’ চলচ্চিত্রে প্রথম নায়ক চরিত্রে অভিনয় করেন। ‘অন্তর জ্বালা’ সিনেমার মাধ্যমে প্রযোজক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি।

জায়েদ খান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগ থেকে এমএ সম্পন্ন করেছেন। জায়েদ খান এসএসসি পাস করার পর ১৯৯৫ সালে ঢাকায় আসেন। থাকতেন বোনের বাড়িতে ঢাকার মধুমিতা সিনেমা হল এলাকায়। এরপর ঢাকা সিটি কলেজে ভর্তি হন তিনি। উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করার পরেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন তিনি।