শ্যালকের স্ত্রীকে নিয়ে উধাও দুলাভাই!

| আপডেট :  ৮ আগস্ট ২০২২, ১১:৩০ অপরাহ্ণ | প্রকাশিত :  ১৮ জুলাই ২০২২, ০৯:৪৩ অপরাহ্ণ

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের গণ্ডগোহলী গ্রামে শ্যালকের স্ত্রীকে নিয়ে নিরুদ্দেশ হয়েছেন এক দুলাভাই। রোববার (১৭ জুলাই) দিনগত রাত থেকে তাদের আর হদিস পাচ্ছে না পরিবার।

এ ঘটনায় শেষ পর্যন্ত সোমবার (১৫ জুলাই) থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের গণ্ডগোহলী গ্রামে।

শ্যালকের স্ত্রীকে নিয়ে পালানোর এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। তাদের উভয়ের সংসারে তিন শিশু সন্তান থাকায় এ ঘটনায় এলাকাজুড়ে সমালোচনা চলছে।

সমালোচিত ওই দুলাভাইয়ের নাম বাবুল হোসেন (২৫) ও শ্যালকের স্ত্রীর নাম প্রিয়া (২৩)। এর মধ্যে ওই গ্রামের আয়নাল হোসেনের স্ত্রী প্রিয়া দুই সন্তানের জননী আর আইনালের বোনের স্বামী বাবুল হোসেন এক সন্তানের জনক।

বাবুল হোসেনের স্ত্রী রুনা বেগম জানান, তার বাবা ও স্বামীর বাড়ি পাশাপাশিই। তবে সবার অজান্তেই ভাইয়ের স্ত্রী প্রিয়ার সঙ্গে তার স্বামী প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এটা তারা আগে কোনোভাবেই বুঝে উঠতে পারেননি। তাদের সংসারে একটি শিশু সন্তানও রয়েছে। মাঝেমধ্যেই সে অসুস্থ হয়।

এজন্য অনেক সময় রাজশাহীতে ডাক্তার দেখাতে নিতে হয়। রোববারও তিনি ডাক্তার দেখাতে গিয়েছিলেন। আর এই সুযোগে তারা দুইজন পালিয়েছেন। স্বামীর এমন কাণ্ডে তারা সবাই হতবাক! এমন প্র’তারণার জন্য আজ তার স্বামীর বিরুদ্ধে পুঠিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে বলেও জানান রুনা বেগম।

জানতে চাইলে পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, গণ্ডগোহলী গ্রামের বাবুল নামের এক ব্যক্তি তার শ্যালকের স্ত্রীকে নিয়ে পালিয়ে গেছেন। এ ঘটনায় তারা একটি লিখিত অভিযোগও পেয়েছেন। পলাতক বাবুলের স্ত্রী বাদী হয়ে থানায় অভিযোগটি দিয়েছেন। তাদের উভয়ের পরিবারে তিনটি শিশু রয়েছে। এজন্য ঘটনাটি খুবই অমানবিক।

ওসি বলেন, পালিয়ে যাওয়া যুগলকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। তাদেরকে ধরতে পারলে প্রথমে পারিবারিকভাবে বিষয়টি নিষ্পত্তির চেষ্টা করা হবে। না হলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।