ভরণপোষণ না পেয়ে অ’সহায় দিন কাটাচ্ছে নায়িকা পপির বৃদ্ধ মা

| আপডেট :  ৭ জুলাই ২০২২, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ | প্রকাশিত :  ৭ জুলাই ২০২২, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ

দেশের চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পপির মা মরিয়ম বেগম। দিন কাটছে অসহায়ত্বে। তার মেয়ে পপি ভরণ-পোষণের দায়িত্ব পালন না করায় মায়ের এই পরিস্থিতি। মায়ের কোনো খোঁজই নেন না। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম একটি ভিডিও বার্তায় এমনই অভিযোগ করেছেন তার মা মরিয়ম বেগম।

ওই ভিডিওতে পপির মা বলেন, সে (পপি) আমার সাথে থাকে না, আমিও থাকি না। পপি কোথায় থাকে আমি জানি না। আমি কোথায় থাকি সেও জানে না। পপি বলে, আমাকে সে ভরণপোষণ দেয়। সব মিথ্যা। তার বাসায়ও আমি থাকি না।

এই দিকে ১৪ বছর ধরে তার মেয়ে পপির কোনো খোঁজখবর জানেন না মরিয়ম বেগম। পপির মা আরও বলেন, ‘২০০৭ সালের পর থেকে পপি আমার সঙ্গে থাকে না। আমি কোথায় আছি, সেটাও জানে না।’

পপির মায়ের এই বক্তব্যের মধ্যে কিছুটা গড়মিল লক্ষ্য করা যাচ্ছে। কেননা ২০১৯ সালে পপির সুবাদে ‘গরবিনী মা সম্মাননা’ লাভ করেন মরিয়ম বেগম। সে সময় একসঙ্গে তাদের অনুষ্ঠানে দেখা গিয়েছিল।

দীর্ঘদিন ধরে শুটিংয়ে নেই চিত্রনায়িকা পপি। পরিচিত জনদের সঙ্গেও খুব একটা দেখা সাক্ষাৎ নেই তার। শোনা যাচ্ছে, বাবা-মায়ের বাসায়ও থাকছেন না ঢালিউড নায়িকা। তাহলে পপি থাকেন কোথায়? ঘনিষ্ঠজনরা বলছেন, পপি বিয়ে করেছেন, থাকেন স্বামীর সঙ্গে। তিনি সন্তানসম্ভবা।

এদিকে, গেল বছরের ডিসেম্বরের ২৩ তারিখ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করেছেন পপি। এরপর থেকেই অনেকটাই উধাও পপি। ‘ভালোবাসার প্রজাপ্রতি’ ছবির শুটিং অর্ধেক করেই লাপাত্তা হয়ে যান পপি।