মঙ্গলবার, ২৮ Jun ২০২২, ০৫:৪২ অপরাহ্ন

শাকিব-অপুকে নিয়ে বোমা ফাটালেন মালেক আফসারি

শাকিব-অপুকে নিয়ে বোমা ফাটালেন মালেক আফসারি

ঢাকাই সিনেমার শীর্ষ তারকা শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস বিয়ে করেছিলেন ২০০৮ সালে। তবে সেই খবর প্রকাশ্যে আসে ২০১৭ সালে। ক্যারিয়ারের কথা ভেবে দীর্ঘ নয় বছর তারা দাম্পত্যজীবন রেখেছিলেন আড়ালে। শেষমেশ সন্তানসহ একটি টেলিভিশন লাইভে এসে তুলে ধরেন বিয়ে ও সন্তান গ্রহণের বিস্ফোরক তথ্য।

২০১৮ সালে এই তারকা জুটির বিচ্ছেদ হয়। বিচ্ছেদের এত বছর পর আবারও সংবাদের শিরোনামে এসেছে শাকিব-অপু জুটি। নেপথ্যে রয়েছে ঢালিউডের ‘মাস্টার মেকার’ মালেক আফসারী। তার দাবি, বিয়ের তিন বছরের মাথায় শাকিব-অপুর সম্পর্কের সবকিছুই জানতে পারেন। নিজের ইউটিউবে পোস্ট করা এক ভিডিওতে নির্মাতা জানিয়েছেন, একটি সিনেমার কাজ চলাকালীন তিনি শাকিব খান আর অপু বিশ্বাসকে শুটিং স্পট থেকে দূরে নিরিবিলি বাংলোতে একান্তে থাকার ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন।

সম্প্রতি এক টিভি অনুষ্ঠানে মালেক আফসারীকে ইঙ্গিত করে মন্তব্য করেছেন অপু বিশ্বাস। সেটা দেখেই কিছুটা ক্ষুব্ধ হয়েছেন তিনি। অপু বিশ্বাসের উদ্দেশে আফসারী বলেন, এক শীতের সময়, আউটডোর। মনে আছে, আপনাদের থাকার ব্যবস্থা করে দিয়েছিলাম দূরের বাংলোতে? কার ইশারায় জানেন? তাপসী ঠাকুরের। তিনি ‘মনের জ্বালা’ সিনেমার প্রযোজক।

তিনি আমাকে ফোন করে বলেছেন, আপনাদের যেন এভাবেই রাখি। আমি অবাক হয়ে বললাম, একজন প্রযোজক হয়ে আপনি চাচ্ছেন নায়ক-নায়িকা একসঙ্গে থাকতে! তখন তিনি বলেন, ‘ওরা তো স্বামী-স্ত্রী। আপনি কসম করেন, কাউকে বলবেন না।’ আমি বলেছিলাম, ঠিক আছে এটা ওদের ব্যক্তিগত ব্যাপার।

সে কথা জানিয়ে অপু বিশ্বাসকে উদ্দেশ করে মালেক আফসারী ভিডিওতে বলেন, ‘আপনাকে কবে থেকে ম্যাডাম বলে ডাকি জানেন? যখন জানলাম আপনারা বিবাহিত। আপনি সুপারস্টার শাকিব খানের স্ত্রী, আপনাকে তো ম্যাডাম না ডেকে পারি না। তখন থেকেই আপনাকে ম্যাডাম ডাকি। সুন্দর শুটিং হইছে। সুপারডুপার হিট হইছে সিনেমা। আপনি খুব প্রশংসা করছিলেন।

ওই ভিডিওতে অপুর উদ্দেশে নির্মাতা আরও বলেন, ‘আমি আপনাকে ট্রল করছি, আপনাকে হজম করতে হবে। আমাকে নিয়ে আপনি ট্রল করেছেন, এটাও আমার হজম করতে হবে। মিডিয়ায় এসব ট্রল চলবে। সবাই বিনোদন নেবে। রিকশা-ভ্যানচালক অবসর সময়ে এসব থেকেই বিনোদন নেবে।’

শাকিব খানের সঙ্গে কোনো সিনেমা করার সুযোগ পেলে, ব্যক্তিগত মান-অভিমান ভুলে সেখানে কাজ করার জন্য অপুকে পরামর্শও দেন মালেক আফসারী। ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি তালাকের নোটিশ পাঠানোর ৯০ দিন পার হলে আইনগতভাবে কার্যকর হয়ে যায় শাকিব-অপুর বিবাহবিচ্ছেদ। এরপর থেকে আর একসঙ্গে কোনো সিনেমাও করেননি এই তারকা জুটি। একাধিকবার তাদের একসঙ্গে দেখা গেলেও সেটা শুধু ছেলে জয়ের সৌজন্যে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2022 banglaekattor.com