‘সুনামগঞ্জ আমার জন্মস্থান, খুবই কষ্ট হচ্ছে’ : শবনম ফারিয়া

| আপডেট :  ১৮ জুন ২০২২, ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ | প্রকাশিত :  ১৮ জুন ২০২২, ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ

বাংলা একাত্তর ডেস্কঃ বন্যায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চল ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এদিকে বন্যায় সুনামগঞ্জের অবস্থা ভয়াবহ। সেখানকার একতলা কোনো ঘর বসবাসের উপযোগী নেই। সুনামগঞ্জের একেকটি উপজেলা পরিণত হয়েছে বিচ্ছিন্ন দ্বীপে।

গত বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) রাতেই পানিতে তলিয়ে গেছে সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়ক। ফলে সারাদেশের সাথে যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে পড়ে সুনামগঞ্জ। এদিকে,পরের দিন শুক্রবার (১৭ জুন) সকাল থেকে বিদ্যুৎহীনতা, মোবাইল নেটওয়ার্ক ও ইন্টারনেট না থাকায় সবদিক থেকেই এখন বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে সুনামগঞ্জ।

সুনামগঞ্জে বন্যার ভয়াবহ পরিস্থিতি নিয়ে ছোট পর্দার অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘সুনামগঞ্জ আমার জন্মস্থান। বাবার পোস্টিং ছিল সেখানে। যদিও বড় হয়ে আর সেখানে যাওয়া হয়নি। কিন্তু গত কিছুদিন ধরে সেখানকার বন্যা পরিস্থিতির ছবি দেখে খুবই কষ্ট হচ্ছে।’

শবনম ফারিয়ার জন্মস্থান সুনামগঞ্জ। তার বাবা সরকারি কর্মকর্তা ছিলেন। দেশের বাড়ি চাঁদপুর হলেও চাকরির সুবাদে পরিবার নিয়ে সুনামগঞ্জেই থাকতেন অভিনেত্রীর বাবা। আর সেখানেই ফারিয়ার জন্ম। আর তাই জন্মস্থান সুনামগঞ্জের এমন বিপর্যয় তাকে খুব কষ্ট দিচ্ছে।

সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, ‘বন্যার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে বিদ্যুৎহীনতা। সারা জেলায় বিদ্যুৎ নেই, ইন্টারনেট নেই। এক-দুইটি এলাকা ছাড়া বাকি জায়গায় মোবাইল নেটওয়ার্কও নেই। সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়ায় উদ্ধার তৎপরতাও ব্যাহত হচ্ছে। সব জায়গায় পানি। জেলার সব মানুষই পানিবন্দি। ফলে আলাদা করে এখন পানিবন্দি কতজন, তা গুণে দেখা সম্ভব নয়। বন্যার্তদের উদ্ধারে সেনাবাহিনী আজ (শনিবার) সকাল থেকেই কাজ শুরু করবে।’