রাত ৯ টার পরও ভোট দিলেন তারা

| আপডেট :  ১৬ জুন ২০২২, ১২:২১ পূর্বাহ্ণ | প্রকাশিত :  ১৬ জুন ২০২২, ১২:২১ পূর্বাহ্ণ

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় একটি ভোটকেন্দ্রে রাত ৯টা ১০ মিনিট পর্যন্ত ভোট দিয়েছেন নারী ভোটাররা। বুধবার (১৫ জুন) ৫ নম্বর অর্জুনতলা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ গোরকাটা ফোরকানিয়া মাদরাসা কেন্দ্রে ভোট দেন তারা। কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. আবুল ফজল বিষয়টি বিডি২৪লাইভকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রাত ৯টা ১০ মিনিটে শেষ ভোটটি গ্রহণ করা হয়েছে। পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকায় অন্ধকারেও নারীরা সারিবদ্ধভাবে ভোট দেন।জানা গেছে,ওই কেন্দ্রে মোট ভোটার ১ হাজার ৩৯৬ জন। এর মধ্যে নারী ৬৮৪ ও পুরুষ ৭১২ জন। কেন্দ্রে পুরুষদের জন্য দুটি বুথ স্থাপিত হলেও নারীদের জন্য মাত্র একটি বুঝ স্থাপন করা হয়।

এজন্য সংশ্লিষ্টরা নির্বাচন কর্মকর্তাকে দায়ী করেছেন তারা।এ বিষয়ে জানতে জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মেসবাহ উদ্দিনের মোবাইলে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।এ বিষয়ে সেনবাগ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাজমুন নাহার বিডি২৪লাইভকে বলেন, বিকেল ৪টার পরও তিন শতাধিক নারী ভোটার কেন্দ্রে লাইনে থাকায় তাদের ভোট গ্রহণ করতে হয়েছে। এতে রাত সোয়া ৯টা বেজে যায়।

বুধবার (১৫ জুন) নোয়াখালীর চার উপজেলায় সাত ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এগুলো হলো সদরের বিনোদপুর, বেগমগঞ্জের মীরওয়ারিশপুর, সেনবাগের কেশারপাড়, অর্জুনতলা, মোহাম্মদপুর এবং হাতিয়ার হরণী ও চানন্দী।নির্বাচনে বেগমগঞ্জ উপজেলায় মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়নে শাহজাহান সাজু নৌকা প্রতীকে বিজয়ী হয়, সদর উপজেলায় বিনোদপুর

ইউনিয়নে বাবলু নৌকা প্রতীকে,হাতিয়া উপজেলায় চানন্দি ইউনিয়নে আজহর নৌকা প্রতীকে, হরিণা ইউনিয়নে আক্তার নৌকা প্রতীকে,সেনবাগ উপজেলায় মোহাম্মদপুর ইউনিয়নে রিগান নৌকা প্রতীকে,কেশরপাড়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী (বিএনপি) অজুর্নতলা ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বিজয়ী হয়।মোট ৭টি ইউনিয়নের মধ্যে ৫টি নৌকা একটি বিএনপি ও একটি আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বিজয়ী হয়। সূত্রঃ বিডি২৪লাইভ