বৃহস্পতিবার, ৩০ Jun ২০২২, ০৮:০৪ পূর্বাহ্ন

গরু চুরি করে মাংস বিক্রির সময় উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাতিজা গ্রেপ্তার

গরু চুরি করে মাংস বিক্রির সময় উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাতিজা গ্রেপ্তার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় চোরাই গরু জ’বাই করে মাংস বিক্রির সময় উপজে’লা চেয়ারম্যানের ভাতিজা কায়কোবাদ ভূঁইয়া (৩৫) হাতেনাতে আ’টক করেছে আখাউড়া থানা পুলিশ। তবে এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে এরশাদ মিয়া নামে মাংস দোকানিসহ আরও কয়েকজন পা’লিয়ে যায়।সোমবার (১৩ জুন) ভোররাতে পৌরশহরের বড় বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আ’টককৃত কায়কোবাদ ভূঁইয়া আখাউড়া উপজে’লা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কাশেম ভূঁইয়ার ভাতিজা।

জানা গেছে, উপজে’লার দক্ষিণ ইউনিয়নের ছোটকুড়ি পাইকা গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল হাকিম মাস্টার কোরবানি দেয়ার জন্য একটি ষাঁড় লালনপালন করছিলেন। পাশের বাড়ির কায়কোবাদ ভূঁইয়া গভীর রাতে গোয়ালঘর থেকে গরুটি চু’রি করেন। পরে সঙ্গীদের নিয়ে রাতেই গরুটি জ’বাই করে ভোররাতে আখাউড়া পৌরশহরের বড় বাজারের মাংসের দোকানি এরশাদ মিয়ার কাছে বিক্রি করতে নিয়ে যান।

আখাউড়া থানার এসআই নুপুর কুমার দাস যমুনা নিউজকে জানান, চোরাই গরু জ’বাই করে মাংস বিক্রি করার খবর পেয়ে ওই মাংসের দোকানে ভোররাতে অ’ভিযান চা’লায় টহল পুলিশ। এসময় উপজে’লা পরিষদ চেয়ারম্যানের ভাতিজা কায়কোবাদ ভূঁইয়াকে মাংসসহ দোকানে হাতেনাতে আ’টক করা হয়। তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্যরা সটকে পড়ে।

আখাউড়া থানার ওসি মিজানূর রহমান যমুনা নিউজকে জানান, চু’রি করে জ’বাই করা গরুর ১০৫ কেজি মাংসের তিনটি বস্তাসহ একজনকে হাতেনাতে আ’টক করা হয়। জ’ব্দকৃত ওই মাংসের বাজার মূল্য ৭৩ হাজার ৫০০ টাকা। চু’রি যাওয়া গরুর চামড়াসহ বিভিন্ন আলামত উ’দ্ধার করে পুলিশ। অ’ভিযুক্ত কায়কোবাদ ভূঁইয়াকে প্রেফতার দেখিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আ’দালতের মাধ্যমে কা’রাগারে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলে ওসি জানিয়েছেন।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2022 banglaekattor.com