ছাত্রকে হাতেকলমে যৌ’ন মিলনের পাঠ শিখিয়ে বিপাকে শিক্ষিকা! - বাংলা একাত্তর ছাত্রকে হাতেকলমে যৌ’ন মিলনের পাঠ শিখিয়ে বিপাকে শিক্ষিকা! - বাংলা একাত্তর

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৬:৪৪ পূর্বাহ্ন

ছাত্রকে হাতেকলমে যৌ’ন মিলনের পাঠ শিখিয়ে বিপাকে শিক্ষিকা!

ছাত্রকে হাতেকলমে যৌ’ন মিলনের পাঠ শিখিয়ে বিপাকে শিক্ষিকা!

যিনি শৈশবের পাহারাদার, যিনি পাঠ দেন নৈতিকতার, সেই শিক্ষকের বি’রুদ্ধে উঠল ‘যৌ’ন মিলনে উদ্বুদ্ধ’ করার মতো অ’ভিযোগ। এমন অ’ভিযোগেই দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার এক স্কুলের শিক্ষিকাকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে। যদিও স্কুল কর্তৃপক্ষ অস্বীকার করেছে যাবতীয় অ’ভিযোগ। তাদের বক্তব্য, এমন কিছু ঘটেনি, বিদ্যালয়ে নাবালকদের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ রয়েছে। ঘটনাটি দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার পোর্ট অগাস্টার।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম বলছে, ত’রুণী শিক্ষিকার নাম এমি সিঙ্গলটন। ২৮ বছরের এমি যখন পোর্ট অগাস্টা ওয়েস্ট প্রাইমারি স্কুলে যখন কর্মরত ছিলেন, তখন এই কাণ্ড করেন বলে অ’ভিযোগ।

তিনি ওই কাজ করেন গত বছরের ১ নভেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে। ওই সময়েই এক নাবালককে এমি যৌ’ন মিলনে উদ্বুদ্ধ করেন। বি’ষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই শিক্ষিকা এবং স্কুলটির চ’রম সমালোচনা শুরু হয়েছে। অন্যদিকে ছেলেমেয়েদের নিয়ে উ’দ্বেগে ভুগছেন অভিভাবকেরা।

যদিও স্কুল কর্তৃপক্ষ যাবতীয় ঘটনা অস্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে। তাদের বক্তব্য, কোনও নাবালকের সঙ্গে এমন কিছু ঘটেনি কখনও। এই বি’ষয়ে অভিভাবকদের উদ্দেশে লেখা চিঠিতে তারা জানিয়েছে, এমি ছিলেন একজন অস্থায়ী শিক্ষিকা। এমনকী আরও বলা হয়, মাত্র একদিন ওই স্কুলে কাজ করেছেন অ’ভিযুক্ত শিক্ষিকা।

প্রিন্সিপাল ডেভিড লটন বলেন, এই ঘটনার সঙ্গে আমাদের স্কুলের কোন ছাত্র জড়িত নয়। আমাদের স্কুলের ভেতরে যে পরিবেশ, তাতে বাচ্চাদের নিয়ে উ’দ্বেগের কোনও কারণ দেখছি না।

স্কুল কর্তৃপক্ষ দায় ঝেরে ফেলতে চাইলেও অ’ভিযুক্ত শিক্ষিকা এমিকে গ্রে’প্তার করে পোর্ট অগাস্টার পুলিশ। যদিও আ’দালতে মা’মলা উঠলে তিনি জা’মিন পান। শি’শু সংক্রান্ত কোনও কাজে যুক্ত থাকবেন না, এই শর্তে শিক্ষিকাকে জা’মিন দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে তথ্য প্রমাণ জোগাড়ে প্রশাসনকে ১২ সপ্তাহ সময় দিয়েছে অগাস্টা ম্যাজিষ্ট্রেট কোর্ট।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com