ফেরি স্বল্পতা: শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে জনদুর্ভোগ - বাংলা একাত্তর ফেরি স্বল্পতা: শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে জনদুর্ভোগ - বাংলা একাত্তর

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
দেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর প্রক্রিয়া সহজ করলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক ব্রেকিং নিউজঃ মুশফিক লিটনকে অবিশ্বাস্য সম্মাননা দিল আইসিসি কান উৎসবে দীপিকার নেকলেসে লেখা ‘ফি-আমানিল্লাহ’! প্যারিসে ইমরানের কণসার্টে অশান্তির ঝড়, গান না করেই ছাড়তে হলো স্টেজ স্ত্রীর বড় বোনকে শয্যাশায়ী করে ভিডিও ধারন, ছোট বোনের জামাই গ্রেফতার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকের হাতে আলাদীনের চেরাগ, বাড়ি গাড়িসহ কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরির পর যে স্ট্যাটাস দিলেন মুশফিকের স্ত্রী যত খুশি ডলার আনা যাবে, লাগবেনা জবাবদিহিতা যানচলাচলের জন্য প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতু কাপাসিয়ায় দুই বেকারির মালিককে এক লাখ টাকা জরিমানা
ফেরি স্বল্পতা: শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে জনদুর্ভোগ

ফেরি স্বল্পতা: শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে জনদুর্ভোগ

সারাদেশ: ফেরি স্বল্পতার কারণে পদ্মা পাড়ে সৃষ্টি হয়েছে দীর্ঘ যানজট। ঈদে ঘরে ফেরা মানুষের দুর্ভোগের শেষ নেই। শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ও শিমুলিয়া-মাঝিরকান্দি নৌরুটে ফেরি স্বল্পতায় দুর্ভোগে পড়েছেন দেশের দক্ষিণবঙ্গ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার যাত্রীরা।

 

বিআইডব্লিউটিএ, বিআইডব্লিউটিসি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ঈদকে সামনে রেখে দুই নৌরুটে ১০টি ফেরি সচল থাকলেও ২৪ ঘণ্টা চালু থাকছে ৭টি ফেরি। রায়পুরা, রানীগঞ্জ ও কর্ণফুলী নামের ৩টি ফেরি দিনে চলাচল করার পর সন্ধায় সেগুলো বন্ধ রাখা হয় বলে জানান বিআইডব্লিউটিসির এজিএম (মেরিন) আহাম্মদ আলী।

 

রোববার সকাল থেকে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ঘরমুখো মানুষের চাপ ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। গার্মেন্টস ও কলকারাখানা বন্ধ ঘোষনা করায় কর্মজীবী মানুষের চাপ বেড়েছে শিমুলিয়া ঘাটে।

 

সকাল থেকেই ফেরিঘাটে চাপ বাড়তে শুরু করেছে। ফেরি সঙ্কটে শিশুসহ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শিমুলিয়া ঘাট থেকে লঞ্চ ও স্পিডবোটে পদ্মা পাড়ি দিচ্ছেন হাজারো মানুষ। শিমুলিয়ায় দুই, তিন ও চার নম্বর ফেরিঘাটের সংযোগ সড়কেও দেখা গেছে গাড়ির দীর্ঘ সারি। আর এক নম্বর ঘাটে প্রবেশের মুখে প্রায় পাঁচ হাজারেরও বেশি মোটরসাইকেল যাত্রীরা পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছেন।

 

শিমুলিয়া নদী বন্দরের পরিবহন পরিদর্শক মো. শাহাদাত হোসেন জানান, শনিবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত লঞ্চ ও স্পিডবোটে ৩৪৫টি ট্রিপে ৮৫ হাজার ঘরমুখো যাত্রী বাংলাবাজার ও মাঝিরকান্দি ঘাট হয়ে নিজ গন্তব্যে রওনা হয়েছেন। এর আগে শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত শিমুলিয়া ঘাট থেকে ৩৫৮টি ট্রিপে লঞ্চ ও স্পিডবোটে পদ্মা পাড়ি দিয়েছেন ১ লাখ ১০ হাজারের বেশি ঈদযাত্রী।

 

বিআইডব্লিউটিসির পরিচালক (বাণিজ্যিক) এস এম আশিকুজ্জামান জানান, দুই নৌরুটে ৮৫টি লঞ্চ চলছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা যাত্রীর চাপ সামাল দিতে সচেষ্ট রয়েছেন।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com