স্বামীকে হ’’ত্যার পর গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখেন জাহানারা - বাংলা একাত্তর স্বামীকে হ’’ত্যার পর গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখেন জাহানারা - বাংলা একাত্তর

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৫:৪২ পূর্বাহ্ন

স্বামীকে হ’’ত্যার পর গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখেন জাহানারা

স্বামীকে হ’’ত্যার পর গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখেন জাহানারা

সারাদেশ: পারিবারিক ক’লহের জেরে নিজের স্বামীকে হ’’ত্যা করে গাছের সাথে বেঁ’ধে রেখেছিল স্ত্রী। এমনই চাঞ্চল্যকর হ’’ত্যার র’হস্য বেরিয়ে এসেছে লক্ষীপুরের বৃ’দ্ধ মিলন হোসেন (৬০) হ’’ত্যাকাণ্ডে। স্ত্রী জাহা’নারা বেগম মিলনকে হ’’ত্যা করে বাগানে নিয়ে ম’রদেহ গ’লায় পেচিয়ে ও দুহাত পেছন দিক থেকে সুপারি গাছের সাথে বেঁ’ধে রাখেন।

রোববার (২৪ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১১টার দিকে মা’মলার ত’দন্তকারী কর্মকর্তা ও চন্দ্রগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবদুল আউয়াল স’রকার বি’ষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মিলনের ম’রদেহ উ’দ্ধারের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হ’’ত্যার র’হস্য উদঘাটন হয়েছে। নি’হতের ছোট ছেলে সাফায়েত হোসেন মাহবুব বা’দী হয়ে মা’মলা করেন।

এতে নি’হতের স্ত্রীকে জি’জ্ঞাসাবাদ করলে তিনি হ’’ত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেন। রোববার বিকেলে আ’দালতেও তিনি হ’’ত্যার ঘটনা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জ’বানব’ন্দি দিয়েছেন।পুলিশ কর্মকর্তা আরও বলেন, তবে জ’বানব’ন্দির প্রতিবেদন এখনো পাইনি। ঘটনার বিস্তারিত বলা যাচ্ছে না। এই ঘটনায় আরও কেউ জড়িত আছে কিনা সেটি এখনো জানা যায়নি।

জানা যায়, লক্ষ্মীপুরসদর উপজে’লার দিঘলী ইউনিয়নের দক্ষিণ খাগুড়িয়া গ্রামে গত ২৩ এপ্রিল সকালে গ’লায় রশি ও গাছের সঙ্গে বাঁ’ধা অবস্থায় মিলনের ম’রদেহ দেখতে মিলনের পরিবারের লোকেরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ম’রদেহ উ’দ্ধার করে সদর হাসপাতালের ম’র্গে পাঠায়।

জি’জ্ঞাসাবাদ এবং ঘটনা অনুসন্ধানের জন্য জাহা’নারাসহ মিলনের পরিবারের চার সদস্যকে আ’টক করে পুলিশ। জি’জ্ঞাসাবাদে জাহা’নারা হ’’ত্যাকাণ্ডের ঘটনার স্বীকার করেন

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com