এ দেশের তরুণদের নিয়ে কর্মসংস্থানের স্বপ্ন দেখেন নাসিম - বাংলা একাত্তর এ দেশের তরুণদের নিয়ে কর্মসংস্থানের স্বপ্ন দেখেন নাসিম - বাংলা একাত্তর

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১২:০৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
২১ মাস পর একই কারাগারে প্রদীপ-চুমকি! দেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর প্রক্রিয়া সহজ করলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক ব্রেকিং নিউজঃ মুশফিক লিটনকে অবিশ্বাস্য সম্মাননা দিল আইসিসি কান উৎসবে দীপিকার নেকলেসে লেখা ‘ফি-আমানিল্লাহ’! প্যারিসে ইমরানের কণসার্টে অশান্তির ঝড়, গান না করেই ছাড়তে হলো স্টেজ স্ত্রীর বড় বোনকে শয্যাশায়ী করে ভিডিও ধারন, ছোট বোনের জামাই গ্রেফতার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকের হাতে আলাদীনের চেরাগ, বাড়ি গাড়িসহ কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরির পর যে স্ট্যাটাস দিলেন মুশফিকের স্ত্রী যত খুশি ডলার আনা যাবে, লাগবেনা জবাবদিহিতা যানচলাচলের জন্য প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতু
এ দেশের তরুণদের নিয়ে কর্মসংস্থানের স্বপ্ন দেখেন নাসিম

এ দেশের তরুণদের নিয়ে কর্মসংস্থানের স্বপ্ন দেখেন নাসিম

প্রযুক্তি: বাংলাদেশের ফ্রীলান্সিং জগতে বেশ পরিচিত মুখ নাসিম। বাবার স্বপ্ন ছিল বড় হয়ে নাসিম সেনাবাহিনীতে যোগদান করবেন। নাসিমের বাবাও একজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য। তবে নাসিমের প্রযুক্তির প্রতি ঝুঁকি থাকায় বাবার স্বপ্নটা আর পূরণ হয়নি। তবে সাফল্যের ধারাবাহিকতায় বাবার মুখ উজ্জ্বল করেছেন।

অনেক কম বয়সে নিজের দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে ফ্রিল্যান্সিং জগতে হয়েছেন প্রতিষ্ঠিত। নিজের ঘরে বসে ইনকাম করছেন এবং পাশাপাশি অন্যদেরও শেখাচ্ছেন ফ্রিল্যান্সিং।

নাসিম বলেন, তথ্য প্রযুক্তির প্রতি আগ্রহ থেকেই ব্লগ ওয়েবসাইট ও ইউটিউব টিউটোরিয়াল দেখতাম। সেখান থেকেই কয়েকটি প্রোগ্রামিং ভাষা, ওয়েবসাইট ডিজাইন ডেভেলপমেন্ট ও মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট শিখেছিলেন। স্কুলে পড়ার সময় ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার হিসেবে ফ্রিল্যান্সিং জগতে কাজ শুরু করেন।

২০১৬ সালে বাবাকে হারিয়ে পরিবারের হাল ধরেন নাসিম। বাবা ক্যান্সারে মারা যাওয়ার পর পারিবারিক অবস্থা অত্যন্ত অসচ্ছল ছিল নাসিমের। ফ্রিল্যান্সিং করে ঘুরে দাঁড়িয়েছে নাসিম।

২০১৬ সালে ফ্রিল্যান্সার ডটকমে সেরা ১০ এর তালিকায় নাসিমের নাম আসে। নাসিম এখন ফেসবুক, ইউটিউবসহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় ফ্রিল্যান্সার নাসিম হিসেবে সুপরিচিত। প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে চালাচ্ছেন সফটওয়্যার ডেভেলপিং কোম্পানি এফএন সফটওয়্যারস অ্যান্ড ইনস্টিটিউট। ২০১৩ সালে নিজস্ব সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি শুরু করেছিলেন। তবে এটি অনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে ২০১৮ সালে।

তরুণদের কর্মসংস্থানের স্বপ্ন দেখেন নাসিম

ফ্রিল্যান্সার নাসিম বলেন, যারা সমালোচনা করে তাদের কাছে আমার সফলতাই বড় জবাব। এমনও মানুষ আছেন ফেসবুকে ৫ বছর ধরে আমার সমালোচনা করছেন। এ ৫ বছরে আমার অনেক পরিবর্তন হলেও তার কোনো পরিবর্তন হয়নি। না তার শব্দের পরিবর্তন হয়েছে, না তার নিজের। যারা সমালোচনা করেন, তাদের শক্তিশালী কোনো স্বপ্ন নেই। যাদের স্বপ্ন আছে, তারা কখনো সমালোচনা করেন না।

নাসিম বলেন, দেশের প্রযুক্তি খাতে উন্নয়ন হলেও আমাদের তরুণ সমাজ সেটা কাজে লাগাতে ব্যর্থ। নাসিম স্কুল, কলেজ ও ছোটবেলার বন্ধুদের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করার স্বপ্ন নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একদিন বলেছিলেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলো দেশীয় কোম্পানির বিজ্ঞাপন নিয়ে দেশের অনেক অর্থ বিদেশে নিয়ে যাচ্ছে। আমাদের দেশীয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের চিন্তা করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর সেদিনের কথা নাসিমকে ভাবায়, তিনি যেহেতু একজন ফ্রিল্যান্সার। তার কাজ হলো বিদেশের অর্থ দেশে আনা। সেই ভাবনা থেকে তিনি একটি দেশীয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম তৈরির কাজ শুরু করেন। যার নাম দেন ‘ই-সমাজ’।

পরীক্ষামূলকভাবে চালু হয় প্ল্যাটফর্ম। প্রথম দিনেই ২০ হাজার ব্যবহারকারী এই প্লাটফর্মে যুক্ত হন। এটি বিদেশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের চেয়ে অনেক বেশি সেবামূলক। ‘ ই – সমাজ ‘ যাত্রা শুরু করলে অনেক তরুণের কর্মসংস্থান হবে বলে আশা করেন নাসিম।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com