সন্তানের জন্য বাবা-মায়ের নির্ঘুম রাত - বাংলা একাত্তর সন্তানের জন্য বাবা-মায়ের নির্ঘুম রাত - বাংলা একাত্তর

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০১:০৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ঢাকা টেস্টে দেড়শ রানের মাইলফলক মুশফিকের ভারতের রেকর্ড ভেঙ্গে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন লিটন-মুশফিক হিরো আলমকে নিয়ে বোমা ফাটালেন সদ্য তালাক দেওয়া স্ত্রী ২১ মাস পর একই কারাগারে প্রদীপ-চুমকি! দেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর প্রক্রিয়া সহজ করলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক ব্রেকিং নিউজঃ মুশফিক লিটনকে অবিশ্বাস্য সম্মাননা দিল আইসিসি কান উৎসবে দীপিকার নেকলেসে লেখা ‘ফি-আমানিল্লাহ’! প্যারিসে ইমরানের কণসার্টে অশান্তির ঝড়, গান না করেই ছাড়তে হলো স্টেজ স্ত্রীর বড় বোনকে শয্যাশায়ী করে ভিডিও ধারন, ছোট বোনের জামাই গ্রেফতার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকের হাতে আলাদীনের চেরাগ, বাড়ি গাড়িসহ কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি
সন্তানের জন্য বাবা-মায়ের নির্ঘুম রাত

সন্তানের জন্য বাবা-মায়ের নির্ঘুম রাত

সারাদেশ: চট্টগ্রাম থেকে সন্দ্বীপ যাওয়ার পথে ঝড়ের কবলে পড়ে স্পিডবোট উল্টে নিখোঁজ হয় ৬ বছর বয়সী আদিফা ও আলিভা। জমজ দুই কন্যার মরদেহ না পেয়ে ঘুমহীন রাত কাটাচ্ছেন মা পান্না বেগম। অপরদিকে ১০ বছর বয়সী নিহত কন্যা আনিকাকে স্বর্ণদ্বীপ হাসপাতাল থেকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে কবর দেওয়ার উদ্দেশ্যে।

গত বুধবার (২০ এপ্রিল) সকাল ৮টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে সন্দ্বীপ যাচ্ছিল একটি স্পিডবোট। পথিমধ্যে কুমিরার গুপ্তছড়া ও মাইটভাঙা ঘাটের মাঝামাঝি স্থানে পৌঁছালে ঝড়ের কবলে পড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, সন্দ্বীপের মগধরা ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মমতাজ সুকানি বাড়ির মো. আলাউদ্দিন কিছুদিন আগে ওমান যাওয়ার জন্য চট্টগ্রামে এসেছিলেন।

বাবাকে বিদায় জানাতে মামার সঙ্গে আনিকা ও তার ছোট যমজ দুই বোনও শহরে আসে। প্রবাসী বাবাকে বিদায় জানিয়ে বাড়িতে ফেরার পথে তারা এ দুর্ঘটনার শিকার হয়।এদিকে ২য় দিনের মতো বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) কোস্টগার্ড উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সম্রাট খীসা জানান, ‘নিখোঁজ তিন শিশুকে খুঁজছে কোস্টগার্ড।

স্পিডবোট দুর্ঘটনায় আলাউদ্দিন-পান্না দম্পতির দুই কন্যার মতো নিখোঁজ রয়েছে সৈকত নামে ৯ বছরের এক শিশু। তার বাবা সমীরও আছেন সন্তানের মরদেহ পাওয়ার অপেক্ষায়। সমীর বলেন, ‘মেয়েকে বাঁচাতে পারলেও ছেলেকে উঠাতে পারিনি। আমার ছেলের মরদেহ খুঁজছি।

স্পিডবোটে যাত্রী হিসেবে থাকা প্রত্যক্ষদর্শী জামাল উদ্দিন জানান, ‘স্পিডবোটে মোট ২০ জন যাত্রী ছিল। নিজের প্রাণ বাঁচাতে স্পিডবোটের ড্রাইভার যাত্রীদের রেখে নদীতে ঝাঁপ না দিলে এই দুর্ঘটনা এড়ানো যেত।’

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com