সংসদের কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নারী সহকর্মীকে যৌ’ন হ’য়রানির অভিযোগ - বাংলা একাত্তর সংসদের কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নারী সহকর্মীকে যৌ’ন হ’য়রানির অভিযোগ - বাংলা একাত্তর

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন

সংসদের কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নারী সহকর্মীকে যৌ’ন হ’য়রানির অভিযোগ

সংসদের কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নারী সহকর্মীকে যৌ’ন হ’য়রানির অভিযোগ

সহকর্মীর বি’রুদ্ধে যৌ’ন হ’য়রানির অ’ভিযোগ তুলেছেন সং’সদে কর্মরত এক নারী। শা’রীরিক ও মা’নসিক নি’র্যাতনের শি’কার ওই নারী এ বি’ষয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরিও (জি’ডি) করেন। যদিও হু’মকি-ধমকিতে সেই জি’ডি তুলে নিতে বা’ধ্য হন ভু’ক্তভোগী। এরপর ওই নারী এ সংক্রান্ত একটি অ’ভিযোগ দেন সং’সদ স’চিব বরাবর। সেই অ’ভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অ’ভিযুক্ত ব্যক্তিকে (সং’সদ স’চিবালয়ের কমিটি শাখা-৬ এ অফিসার মো. রফিকুল ইসলাম) কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়ে লিখিত জবাব চাওয়া হয়েছে।

শনিবার (৯ এপ্রিল) উপস’চিব (ট্রেঅ্যান্ডপ্রি) এসএম মঞ্জুর স্বাক্ষরিত কারণ দর্শানো নোটিশ থেকে জানা যায়, ভু’ক্তভোগী নারী সং’সদ স’চিবালয়ের কমিটি শাখা-৬ এ অফিসার মো. রফিকুল ইসলামের অধীনে অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে কর্মরত। দায়িত্ব পালনকালে রফিকুল ইসলাম ওই নারীকে বিভিন্নভাবে যৌ’ন হ’য়রানি করছিলেন। সম্মান ও লোকল’জ্জার কথা ভেবে ভু’ক্তভোগী তার ঊর্ধ্বতনকে অনুনয়-বিনয় করে বোঝানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু রফিকুল ইসলাম উল্টো তাতে হ’’ত্যার হু’মকি পর্যন্ত দেন এবং জি’ডি তুলে নিতে বা’ধ্য করেন।

এসব অ’ভিযোগ আমলে নিয়ে রফিকুল ইসলামকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়ে চিঠির পাওয়ার সাত কর্ম’দিবসের মধ্যে লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে।এ বি’ষয়ে জানতে চাইলে ভু’ক্তভোগী ওই নারী কর্মী জাগো নিউজকে বলেন, ‘ওই কর্মকর্তা জো’র করে অনেকবার শ্লী’লতাহা’নির চেষ্টা করেছেন। অনেক অনুনয়-বিনয়, অনুরোধেও তাকে থামাতে পারিনি। চাকরি আর লোকল’জ্জার ভ’য়ে দিনের পর দিন সহ্য করে গেছি। শুধু আমি নই, এখানে যেসব নারী বদলি হয়ে আসেন তাদের সঙ্গেও একই রকম ব্যবহার করা হয়। কিন্তু লোকল’জ্জার ভ’য়ে সবাই চুপ থাকেন।’

ওই ভু’ক্তভোগীর স্বামীও সং’সদের একজন কর্মকর্তা। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, নিরাপত্তাহীনতায় আমরা সং’সদ স’চিব মহোদয়কে অবহিত করেছি। তার বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে লিখিত অ’ভিযোগও করেছি। আসলে আমরা দুজনই ভে’ঙে পড়েছি মা’নসিকভাবে। লোকল’জ্জার ভ’য়ে আর কতদিন এ ধরনের নি’র্যাতন সহ্য করা যায়। আশাকরি স্পিকার মহোদয় এর সুষ্ঠু বিচার করবেন।

এ বি’ষয়ে অ’ভিযুক্ত মো. রফিকুল ইসলাম গত বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমি আসলে তাকে শাসন করতে চেয়েছিলাম। এই বি’ষয়টিই বড় করে দেখা হচ্ছে। তবে আমার বি’রুদ্ধে সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে এটা ঠিক। এছাড়া স’চিব স্যারের কাছে বিচারও দেওয়া হয়েছে। তাদের কাছেই এ ব্যাপারে জানতে পারবেন। আমি আর কিছু বলতে চাই না।’

সং’সদের সিনিয়র স’চিব কে এম আব্দুস সালাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জাগো নিউজকে বলেন, এ সংক্রান্ত অ’ভিযোগ পাওয়ার পর তাকে শো’কজ করা হয়েছে। ত’দন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী তার বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com