সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন

ট্রাম্পকে প্রতিবেশী হিসেবেও গ্রহণ করতে রাজি নয় ফ্লোরিডার বাসিন্দারা

ট্রাম্পকে প্রতিবেশী হিসেবেও গ্রহণ করতে রাজি নয় ফ্লোরিডার বাসিন্দারা

সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজিত হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সব ঠিক থাকলে আগামী ২০ জানুয়ারি নতুন প্রেসিডেন্ট শপথ গ্রহণ করবেন। আর এর পরপরই ডোনাল্ড ট্রাম্প হোয়াইট হাউস ত্যাগ করবেন। ট্রাম্পের পরিকল্পনা রয়েছে হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর তিনি তার প্রাইভেট ক্লাব মার-এ-লাগোতে উঠবেন। কিন্তু ট্রাম্পকে মেনে নিতে চাইছেন না তার নিকটতম প্রতিবেশীরাও।

ফ্লোরিডা রাজ্যের প্লাম বিচ শহরে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মালিকানাধীন এই প্রাইভেট ক্লাব মার-এ-লাগোর সদস্য প্রায় ৫শ’। অনেকগুলো বিল্ডিং ব্লকে বিন্যস্ত ক্লাবটি অনেকটা প্রাইভেট অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের মতো।ইতোমধ্যে মঙ্গলবার ক্লাবটির বাসিন্দারা প্লাম বিচ শহর কর্তৃপক্ষের কাছে এক লিখিত আর্জি দিয়েছেন। আর্জিতে তারা জানিয়েছেন, তারা প্রতিবেশী হিসেবে ট্রাম্পকে চান না এবং ১৯৯০ সালে স্বাক্ষরিত এক চুক্তির ফলে ট্রাম্প মার-এ-লাগোয় তার বসবাসের অধিকার হারিয়েছেন।

ওয়াশিংটন পোস্টের এক প্রতিবেদনে জানস গেছে, এই দাবির একটা কপি ইউএস সিক্রেট সার্ভিসকেও দেয়া হয়েছে। এস্টেটের বাসিন্দাদের পক্ষে তাদের আ্যটর্নি এই দাবিনামা পেশ করেন। এই আ্যটর্নি ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেন, যে কোনো ধরনের বিব্রতকর পরিস্থিতি এড়াতে অধিবাসীদের পক্ষে এ ব্যবস্হা নেয়া হয়েছে। কারণ প্রেসিডেন্ট এখানে আসলে আবারও তাকে উচ্ছেদ করা হতে পারে। তবে এ বিষয়ে হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র, ট্রাম্পের স্হানীয় আইনজীবী অথবা প্লাম বিচের মেয়র কেউই কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

প্রসঙ্গত, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পক্ষে তার অ্যাটর্নি ১৯৯৩ সালে প্লাম বিচ টাউনহল কাউন্সিল মিটিংয়ে ট্রাম্প ওখানে থাকবেন না বলে অঙ্গিকার করেন। কিন্তু এরপরও মার-এ- লাগোকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প একবার শীতকালীন হোয়াইট হাউস ঘোষণা করেছিলেন এবং গত কয়েক বছর ধরে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মার-এ- লাগোতে ঘন ঘন সফরের ফলে ট্রাফিক জ্যাম ও স্ট্রিট ব্লক করে রাখায় চারপাশের প্রতিবেশীরা তার ওপর তিক্ত-বিরক্ত।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com