গভীর রাতে ম’দ্যপ অবস্থায় পুলিশের ও’পর চড়াও বেপরোয়া স্পর্শিয়া (ভিডিও) - বাংলা একাত্তর গভীর রাতে ম’দ্যপ অবস্থায় পুলিশের ও’পর চড়াও বেপরোয়া স্পর্শিয়া (ভিডিও) - বাংলা একাত্তর

রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ০৭:৪৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ঢাকা হয়ে আগরতলা থেকে কলকাতা বাস চলবে ১০ জুন থেকে ধৈর্য পরীক্ষায় এত বড় পাশ দিলাম, ছোটমোটো প্রাইজে চলবে না: পরিমণি মেয়েকে উ’ত্ত্যক্ত করায় ব’খাটেকে প্রকাশ্যে লা’ঠি পে’ঠা করলেন মা অনুষ্ঠানে দাওয়াত না পেয়ে শিক্ষকদের পেটালেন চেয়ারম্যান ফেসবুকে প্রথম দেখাতেই প্রেম; ‘মেঘনা’ ভেবে পুরুষকে বিয়ে করল যুবক সিজার ছাড়াই ১২ ঘণ্টায় ৬ নবজাতকের স্বাভাবিক প্রসবে অনন্য রেকর্ড! মায়ের মৃত্যুতে হতাশ হয়ে নদীতে ফেলে দিলেন নিজের দেড় কোটির টাকার গাড়ি চরম সর্বনাশের মুখে কঙ্গনা! বিদ্যুৎ কর্মকর্তার গ’লায় ছু’রি ঠেকিয়ে বিচ্ছিন্ন সংযোগ জোড়া লাগালেন গ্রাহক সরকারি সুবিধা নিতে নিজের স্ত্রীকেই ফের বিয়ে করলেন ছাত্রনেতা!
গভীর রাতে ম’দ্যপ অবস্থায় পুলিশের ও’পর চড়াও বেপরোয়া স্পর্শিয়া (ভিডিও)

গভীর রাতে ম’দ্যপ অবস্থায় পুলিশের ও’পর চড়াও বেপরোয়া স্পর্শিয়া (ভিডিও)

অভিনেত্রী স্পর্শিয়া ও তার বন্ধু প্রাঙ্গন দত্ত অর্ঘকে (৩৩) গভীর রাতে আ’টক করে রাজধানীর ধানমন্ডি থানা পুলিশ। পরে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান তারা।পুলিশ বলছে, ম’দ্যপ অবস্থায় পুলিশের সঙ্গে অসাদচারণ করায় তাদের থানায় নেওয়া হয়েছিল।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) রাতে ধানমন্ডির ৮-এ রোডে ইউনিমার্ট শপিং সেন্টার এলাকায় ধানমন্ডি থানার এসআই মাহবুব উল আলম এবং এসআই মাইনুল ইসলাম টহল উিউটিতে ছিলেন। রাত ১২ টার দিকে আবাহনী মাঠের দিক থেকে জিগাতলার দিকে একটি অভিজাত প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্টো-ঘ-১৭-৪০৭২) বে’পরোয়া গতিতে যাচ্ছিল।

ইউনিমার্টের সামনের সড়কে একটি রিকশাকে ধাক্কা দেওয়ার উপক্রম হয়েছিল গাড়িটি। এসআই মাহবুব গাড়িটি থামার সংকেত দেন। ওই গাড়িতে ছিলেন অভিনেত্রী স্পর্শিয়া ও তার বন্ধু প্রাঙ্গন দত্ত অর্ঘ। প্রাঙ্গন গাড়ি চালাচ্ছিলেন আর পাশের সিটে ছিলেন স্পর্শিয়া।

তাদের গাড়ি কেনও থামানো হয়েছে- এমন প্রশ্ন করে পুলিশের ও’পর চড়াও হন তারা। পুলিশের সঙ্গে অসাদাচরণ করেন। ম’দ্যপ অবস্থায় কি না প্রাঙ্গনের কাছে জানতে চায় পুলিশ। এ সময় প্রাঙ্গন বলেন, তার ম’দ্যপানের লাইসেন্স রয়েছে। কিন্তু তখন লাইসেন্স দেখাতে পারেননি। এক পর্যায়ে গাড়িসহ তাদের ধানমন্ডি থানায় নেওয়া হয়। পরে রাতেই প্রাঙ্গন মুচলেকা দেন থানায়। এরপর স্পর্শিয়া ও তিনি ছাড়া পান। ম’দ্যপ অবস্থায় থাকার কথা মুচলেকায় উল্লেখ করেন প্রাঙ্গন। অবশ্য মুচলেকায় স্পর্শিয়ার নাম উল্লেখ করেননি।

এসআই মাহবুব গণমাধ্যমকে জানান,’গাড়ি কেনও থামানো হয়েছে, এই প্রশ্ন তুলে প্রাঙ্গন খা’রাপ আচরণ করেন। স্পর্শিয়াও চি’ৎকার চেঁচামেচি করছিলেন। অবশ্য আমরা তার সঙ্গে কথা বলিনি। যেহেতু প্রাঙ্গন ম’দ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালাচ্ছিলেন তাই তাকেই জি’জ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে সিনিয়র স্যারদের সঙ্গে কথা বলে থানায় নেওয়া হয়।’

ধানমন্ডি থানার ওসি ইকরাম আলী মিয়া গণমাধ্যমকে জানান, দ্রুত গতিতে গাড়ি চা’লানোর কারণে পুলিশ গাড়ি থামিয়ে প্রাঙ্গনকে জি’জ্ঞাসাবাদ করে। গাড়িতে স্পর্শিয়া ছিল। তারা পুলিশের সঙ্গে অসাদচারণ করেন। এ কারণে তাদের থানায় নেওয়া হয়েছিল। রাতেই মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে তাদের। ভিডিও

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com