বিয়ের দাওয়াত খেতে গিয়ে মইরেন না : ফারিয়া শাহরিন - বাংলা একাত্তর বিয়ের দাওয়াত খেতে গিয়ে মইরেন না : ফারিয়া শাহরিন - বাংলা একাত্তর

শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বিয়ের দাওয়াত খেতে গিয়ে মইরেন না : ফারিয়া শাহরিন

বিয়ের দাওয়াত খেতে গিয়ে মইরেন না : ফারিয়া শাহরিন

ক’রোনাভা’ইরাসে আ’ক্রান্ত হয়েছেন ছোট পর্দার অভিনেত্রী-মডেল ফারিয়া শাহরিন। বর্তমানে তিনি বাসায় আইসোলেশনে রয়েছেন।শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে সোশ্যাল মিডিয়ায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন এই অভিনেত্রী।জানা যায়, গত কয়েক দিন ধরেই অ’সুস্থ বোধ করছিলেন ফারিয়া। কোভিড-১৯ পরীক্ষা করালে রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে ফারিয়া শাহরিন লিখেছেন, ‘আমি কোভিড-১৯ পজিটিভ। দয়া করে ভিড়ের মধ্যে যাওয়া বন্ধ করুন। মাস্ক পরুন। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন।’

সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়ে তিনি লেখেন, ‘আমার মতো বেশি আত্মবিশ্বাসী হবেন না। আপনি ক’রোনার চেয়ে বেশি শক্তিশালী ভাবলেই শেষ! দরকার ছাড়া কেউ বাইরে বের হবেন না। বিয়ের মৌসুম বুঝলাম, কিন্তু বিয়ের দাওয়াত খেতে গিয়ে মইরেন না। আমি অনেক ক’ষ্ট পাচ্ছি। আমার মতো যাতে কেউ ক’ষ্ট না পান তাই অনুরোধ করছি। এই ক’রোনা খুব দ্রুত ছড়াচ্ছে। সুতরাং পরিবার, বাচ্চা-কাচ্চার কথা ভেবে নিরাপদে থাকুন।’

বিশ্বব্যাপী ক’রোনা সং’ক্র’মণ বেড়েছে। দেশেও ক’রোনায় নতুন রো’গী শনাক্তের সংখ্যা বাড়ছে। বাড়ছে শনাক্তের হার আর মৃ’ত্যুও। ক’রোনাভা’ইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ছয় জনের মৃ’ত্যু হয়েছে। এ সময় ক’রোনায় আ’ক্রান্ত রো’গী শনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ৩৭৮ জন। এর আগে গতকাল (বৃহস্পতিবার) ১২ জনের মৃ’ত্যু এবং ৩ হাজার ৩৫৯ জন আ’ক্রান্ত হয়েছিল। শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) স্বা’স্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তির তথ্যমতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজার ৩৬৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ২৯ হাজার ৮৭১টি নমুনা। নতুন পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৬৬ শতাংশ। মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬৩ শতাংশ।

এখন পর্যন্ত মোট ক’রোনায় আ’ক্রান্ত হয়েছেন ১৬ লাখ ৯ হাজার ৪২ জনে। মৃ’ত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ১২৯ জনের। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ক’রোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩৫১ জন। মোট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫ লাখ ৫২ হাজার ৩০৬ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় মা’রা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ২ জন পুরুষ, ৪ জন নারী। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৩ জন। চট্টগ্রাম বিভাগে দুইজন এবং রাজশাহী বিভাগে একজন মা’রা গেছেন।উল্লেখ্য, গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম তিনজনের দেহে ক’রোনাভা’ইরাস শনাক্ত হয়। এর ঠিক ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে ক’রোনায় আ’ক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃ’ত্যু হয়।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com