স্বতন্ত্র প্রার্থীকে মা’রধর করে ডোবায় ফেললেন নৌকার প্রার্থীর সমর্থকরা - বাংলা একাত্তর স্বতন্ত্র প্রার্থীকে মা’রধর করে ডোবায় ফেললেন নৌকার প্রার্থীর সমর্থকরা - বাংলা একাত্তর

বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:০১ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
স্বতন্ত্র প্রার্থীকে মা’রধর করে ডোবায় ফেললেন নৌকার প্রার্থীর সমর্থকরা

স্বতন্ত্র প্রার্থীকে মা’রধর করে ডোবায় ফেললেন নৌকার প্রার্থীর সমর্থকরা

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে এক স্বতন্ত্র প্রার্থীকে মা’রধর করে ডোবায় ফেলার অ’ভিযোগ উঠেছে নৌকা প্রার্থীর অনুসারীদের বি’রুদ্ধে। এ ঘটনায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর ৩-৪ জন অনুসারীও আ’হত হয়।

বুধবার (৫ জানুয়ারি) দুপুরে ভোট চলাকালীন সময়ে উপজে’লার ৯নং দেওটি ইউনিয়নের দেওটি স’রকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। হা’মলার শি’কার স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম দিদার হোসেন। তিনি উপজে’লার ৯নং দেওটি ইউনিয়নে সাবেক বিএনপি সমর্থিত চেয়ারম্যান। বর্তমানে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্ব’ন্দ্বিতা করছেন।

ভু’ক্তভোগী স্বতন্ত্র প্রার্থী অ’ভিযোগ করে তিনি বলেন দুপুরের দিকে দেওটি স’রকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে যান। কেন্দ্র থেকে বাহির হওয়ার কিছুক্ষণ পর নৌকার সমর্থক কিং মোজাম্মেলের লোকজন তার ও’পর হ’’ত্যার উদ্দেশ্যে হা’মলা চা’লায়। এ সময় তারা তাকে বে’ধড়ক মা’রধর করে একটি ডোবায় ফে’লে দেয়। তিনি আরো অ’ভিযোগ করেন এ ছাড়াও কয়েকটি ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ করতে নৌকার সমর্থকরা তাকে বা’ধা দেয়।

অ’ভিযোগের বি’ষয়ে জানতে চাইলে ৯নং দেওটি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নুরুল আমিন শাকিল অ’ভিযোগ নাকচ করে দিয়ে বলেন, দিদার মাটিতে পড়ে গায়ে কাদা মেখে নাটক করেছে। উল্টো দিদারের সমর্থকদের হা’মলায় আমার ২০-২২ জন অনুসারী আ’হত হয়। আমার কোনো সমর্থক তার ও’পর হা’মলা চা’লায়নি।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশীদ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এমন অ’ভিযোগ পায়নি। লিখিত অ’ভিযোগ পেলে বিয়টি খতিয়ে দেখে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com