মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৫:১২ পূর্বাহ্ন

বাংলার এই পাঁচ জেলায় কিছুক্ষনের মধ্যেই ধে-য়ে আসছে শৈত্যপ্রবাহ, সাথে চলতে পারে বৃষ্টি, তাপমাত্রা নামতে পারে ৪ ডিগ্রিতে!

বাংলার এই পাঁচ জেলায় কিছুক্ষনের মধ্যেই ধে-য়ে আসছে শৈত্যপ্রবাহ, সাথে চলতে পারে বৃষ্টি, তাপমাত্রা নামতে পারে ৪ ডিগ্রিতে!

আরো একবার জাঁকিয়ে পড়তে চলেছে শীত এই দেশে । এমনটাই জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস ম তার পাশাপাশি বয়ে যেতে পারে পাঁচটি শৈত্যপ্রবাহ । যা তাপমাত্রাকে একদম কমিয়ে ফেলবে বলে অনুমান করা যায় ম নভেম্বরের শুরুতে শীতের আমেজ অল্প অল্প করে লক্ষ্য করা গেলেও ডিসেম্বরে তার প্রভাব অনেকখানি বেড়েছে ।

সকাল থেকে রোদের তাপমাত্রা বেশি থাকার জন্য গরম লাগলেও সন্ধে নামতে না নামতেই শুরু হচ্ছে শীতের দাপট । রীতিমতো গায়ে লেপ মুড়ি দিতে বাধ্য করছে দেশবাসীকে। এমতাবস্থায় আরও একবার আগামী দিনে ব্যাপক পরিমাণে শীত পড়তে চলেছে এমনটা জানানো হয়েছে আবহাওয়া দপ্তর থেকে ।আবহাওয়া দপ্তর খবর অনুসারে ডিসেম্বর মাসে এক থেকে দুটি মৃদু শৈত্যপ্রবাহ এবং জানুয়ারি মাসে দুই থেকে তিনটি মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে দেশের উপর দিয়ে । এই ঘটনা আরও চিন্তায় ফেলেছে সমগ্র দেশবাসীকে ।

কারণ এতে তাপমাত্রা ৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড এর নিচে নেমে যেতে পারে । যদি তাপমাত্রা ১০-৮ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড এর মধ্যে নেমে যায় তাহলে সেটি মৃদু প্রবাহ এবং যদি ৮-৬ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড এর মধ্যে নামে তাহলে সেটি মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ আর যদি ৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড এর নিচে নেমে যায় তাহলে সেটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহ। তবে ডিসেম্বর শেষে এবং জানুয়ারির শুরুতে তাপমাত্রা ৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড এর নিচে কমতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে ।

তার পাশাপাশি এল আরো এক ধরনের দুসংবাদ । ডিসেম্বরের শেষে বঙ্গোপসাগর তৈরি হতে পারে বেশ কয়েকটি নিম্নচাপ অর্থাৎ দুই থেকে তিনটি নিম্নচাপ। যাদের মধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবার আশঙ্কা প্রবল । তবে এই সমস্ত ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব বাংলাদেশে পড়বেন না । নদী মাতৃক দেশ হওয়ার কারণে বাংলাদেশে সকাল থেকে কুয়াশা থাকবে ব্যাপক পরিমাণে ।

আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান বলেন, উত্তরের বাতাস তীব্র না হওয়াতে রাতের বেলা শীত অনুভূ’ত হলেও এখনো দিনের বেলা সূর্যের তাপের কারণে কম অনুভূ’ত হচ্ছে। তবে ডিসেম্বর মাসে শীতের তীব্রতা বাড়বে এবং এক বা একাধিক শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। ডিসেম্বরের শুরু থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থানে ধীরে ধীরে তাপমাত্রা কমবে।এবারে ব্যাপক পরিমাণে যে শীত পড়বে সেটি আগে থেকে অনুমান করা গিয়েছিল ম কিন্তু এতটা পরিমাণ এর তাপমাত্রা কমে যাবে বা কমতে পারে এ ধরনের অনুমান কারো পক্ষে ছিল না । ফলে রীতিমতো চিন্তার মধ্যে রয়েছে দেশবাসী ।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com