‘ওমিক্রন থেকে কারও রেহাই নেই’ লিখে স্ত্রী-সন্তানকে হ’ ত্যা করলেন চিকিৎসক - বাংলা একাত্তর ‘ওমিক্রন থেকে কারও রেহাই নেই’ লিখে স্ত্রী-সন্তানকে হ’ ত্যা করলেন চিকিৎসক - বাংলা একাত্তর

রবিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৫১ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
j z y x w u t s s r
‘ওমিক্রন থেকে কারও রেহাই নেই’ লিখে স্ত্রী-সন্তানকে হ’ ত্যা করলেন চিকিৎসক

‘ওমিক্রন থেকে কারও রেহাই নেই’ লিখে স্ত্রী-সন্তানকে হ’ ত্যা করলেন চিকিৎসক

প্রতীকী ছবি

ক’রোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন আ’তঙ্কে নিজের স্ত্রী ও দুই স’ন্তানকে হ’’ত্যা করেছেন ভারতের এক চিকিৎসক। হ’’ত্যা করে নিজের ভাইকে হোয়াটসঅ্যাপে বার্তাও পাঠিয়েছেন তিনি। সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে উত্তর প্রদেশের কানপুরে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, ওই চিকিৎসক তার নিজের স্ত্রী ও ছেলে-মেয়েকে হ’’ত্যা করে ভাইকে হোয়াটসঅ্যাপে বার্তা পাঠান। সেখানে লেখা ছিল, লা’শ গুনতে গুনতে আমি ক্লান্ত। ওমিক্রনের সং’ক্র’মণ থেকে কেউ রেহাই পাবে না। এমন পরিস্থিতির যাতে শি’কার না হতে হয়, তাই ওদের মুক্তি দিচ্ছি।

হ’’ত্যাকারী চিকিৎসকের ভাই পুলিশকে জানিয়েছেন, এই বার্তা পাওয়ার সাথে সাথেই তিনি ছুটে যান তাদের বাড়িতে। তবে ততক্ষণে সেখান থেকে বের হয়ে গিয়েছিলেন সেই চিকিৎসক। পরে একটি ঘরে তার স্ত্রীর ম’রদেহ এবং অন্যঘরে ছেলে-মেয়ের লা’শ পড়ে থাকতে দেখেই পুলিশে খবর দেন হ’’ত্যাকারীর ভাই।

এ বি’ষয়ে পুলিশ জানায়, অনেকদিন থেকেই অবসাদে ভুগছিলেন সেই চিকিৎসক। নিজের স্ত্রীকে শ্বা’সরো’ধ করে হ’’ত্যা করেছেন তিনি। পাশাপাশি দুই স’ন্তানের মাথায় হা’তুড়ি দিয়ে পি’টিয়ে তাদের খু’ন করেছেন। এরপরই গা ঢাকা দিয়েছেন এই চিকিৎসক।

তার ঘর থেকে একটি ডায়েরি উ’দ্ধার করা হয়েছে। সেখানে তিনি খু’নের কথা লিখেছেন। শুধু তাই নয়, ওমিক্রনের কথাও সেখানে উল্লেখ করেছেন তিনি। ত’দন্তকারীদের দাবি, ডায়েরিতে এটাও স্পষ্ট করে লেখা, এখন থেকে আর লা’শ গুনতে হবে না। ক’রোনা সবাইকেই মারবে।

তবে এই ঘটনার পেছনে শুধুমাত্র ক’রোনা দায়ী নাকি অন্য কোনো কারণ আছে, তা খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে পুলিশ। সেই চিকিৎসককেও গ্রে’ফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    j

    z

    y

    x

    w

    u

    t

    s

    s

    ১০

    r

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com