সুবর্ণা মুস্তাফার জন্মদিনে সৌদ বললেন, ‘দ্রুত আসো প্লিজ’ - বাংলা একাত্তর সুবর্ণা মুস্তাফার জন্মদিনে সৌদ বললেন, ‘দ্রুত আসো প্লিজ’ - বাংলা একাত্তর

রবিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:১২ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
j z y x w u t s s r
সুবর্ণা মুস্তাফার জন্মদিনে সৌদ বললেন, ‘দ্রুত আসো প্লিজ’

সুবর্ণা মুস্তাফার জন্মদিনে সৌদ বললেন, ‘দ্রুত আসো প্লিজ’

দেশের নন্দিত অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা। তবে অভিনয় ছাড়াও তিনি আবৃত্তি উপস্থাপনা ও রাজনীতিতে আলো ছড়িয়েছেন। বরেণ্য এই তারকার জন্মদিন আজ। ১৯৬০ সালের ২ ডিসেম্বর পৃথিবীতে এসেছিলেন তিনি। আজ পা রাখলেন ৬২ বছরে।

বিশেষ দিনটিতে সুবর্ণা মুস্তাফা দেশে নেই। জানা গেছে, তিনি এখন কানাডায়। তাই সবচেয়ে কাছের মানুষ অর্থাৎ তার স্বামী-নির্মাতা বদরুল আনাম সৌদের মন খারাপ। স্ত্রীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লিখেছেন, ‘মুস্তাফা, তোমাকে খুব মিস করছি। শুভ জন্মদিন। দ্রুত আসো প্লিজ।’

স্বামীর প্রেমময় বার্তায় জবাবও দিয়েছেন সুবর্ণা। মন্তব্য করেছেন, ‘আমিও তোমাকে অনেক বেশি মিস করছি। তোমাকে সবসময় ভালোবাসি।’উল্লেখ্য, সুবর্ণা মুস্তাফার জন্ম ঢাকায়। তবে তার পৈতৃক নিবাস ঝালকাঠি জেলার দপদপিয়া ইউনিয়নে। তার বাবা ছিলেন খ্যাতিমান অভিনেতা ও আবৃত্তিকার গোলাম মুস্তাফা। মা ছিলেন পাকিস্তান রেডিওর একজন প্রযোজক।

সুবর্ণা মুস্তাফার অভিনয় জীবন শুরু হয় ছোটবেলাতেই। মায়ের হাত ধরে ৫-৬ বছর বয়সে তিনি বেতারের নাটকে কাজ শুরু করেন। টিভি নাটকে তার অভিষেক হয় ক্লাস নাইনে ওঠার পর।আশির দশকে পূর্ণাঙ্গ অভিনেত্রী হিসেবে জনপ্রিয়তা লাভ করেন সুবর্ণা মুস্তাফা। বিভিন্ন নাটক ও সিনেমায় তার অভিনয় কেড়ে নিয়েছিল দর্শকের মন। ‘কোথাও কেউ নেই’ ও ‘আজ রবিবার’ নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে কালজয়ী অভিনেত্রী হয়ে যান সুবর্ণা।

তার অভিনীত সিনেমাগুলো হলো- ‘ঘুড্ডি’, ‘নতুন বউ’, ‘নয়নের আলো’, ‘পালাবি কোথায়’, ‘গহীন বালুচর’, ‘গণ্ডি’ ইত্যাদি।শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব চরিত্রের অভিনেত্রী হিসেবে সুবর্ণা মুস্তাফা পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এছাড়া দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদকে ভূষিত হয়েছেন তিনি।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    j

    z

    y

    x

    w

    u

    t

    s

    s

    ১০

    r

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com