প’রকীয়ায় মত্ত স্ত্রী প্রেমিককে নিয়ে খু ন করে স্বামী প্রতীক হাসানকে - বাংলা একাত্তরপ’রকীয়ায় মত্ত স্ত্রী প্রেমিককে নিয়ে খু ন করে স্বামী প্রতীক হাসানকে - বাংলা একাত্তর

সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৮:০৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
প’রকীয়ায় মত্ত স্ত্রী প্রেমিককে নিয়ে খু ন করে স্বামী প্রতীক হাসানকে

প’রকীয়ায় মত্ত স্ত্রী প্রেমিককে নিয়ে খু ন করে স্বামী প্রতীক হাসানকে

স্বামী হ’’ত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি হার্ট অ্যাটাক বলে প্রতিষ্ঠিত করতে চেয়েছিল স্ত্রী লিজা আক্তার (১৬)। তবে সত্য চা’পা থাকেনি বেশি সময়। ত’দন্তে একে একে বেরিয়ে আসে প্রকৃত ঘটনা। খুলতে থাকে হ’’ত্যাকাণ্ডের র’হস্যজট। বেরিয়ে আসে স্ত্রী লিজার প’রকীয়ার ঘটনা। প্রেমিক শাহীন মিয়ার (২৬) সাথে মিলে স্বামী প্রতীক হাসানকে (৩১) হ’’ত্যার নি’র্মম কাহিনী। স্বামী প্রতীক হাসান টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজে’লার কাজলা গ্রামের বিল্লাল মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও স্বজনদের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রতীক হাসান একই এলাকার লেবু মিয়ার মেয়ে লিজা আক্তারকে বিয়ে করেন দুই বছর আগে। কাজের উদ্দেশে এই দম্পতি থাকতেন আশুলিয়ার জামগড়া এলাকায়। জামগড়া এলাকার দাদা মার্কে’টের ভুট্টু মিয়ার বাসায় ভাড়া থাকতেন তারা দুজন। প্রতীক হাসান মিতালী টেক্সটাইল নামের একটি গার্মেন্টসে কাজ করতেন। সেখানে লিজার পরিচয় হয় আরেক ভাড়াটিয়া শাহীন মিয়ার সাথে। পরিচয় থেকে প্রণয়ে গড়ায় তাদের সম্পর্ক।

লিজা ও শাহীনের মধ্যে চলতে থাকে প’রকীয়া। সেই প’রকীয়ার জেরে প্রায়ই ঝ’গড়া হতো লিজার স্বামীর সাথে। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ি গত ২১ নভেম্বর রাতে লিজা এবং প্রেমিক শাহীন স্বামী প্রতীক হাসানকে শ্বাসরুদ্ধ করে হ’’ত্যা করে। পরের দিন সকালে স্বামীর লা’শ নিয়ে ঘাটাইলের কাজলা গ্রামে প্রতীক হাসানের বাড়িতে আসে লিজা। হার্ট অ্যাটাকে তার স্বামী মা’রা যায় বলে পরিবারকে জানায়। কিন্তু পরিবারের স’ন্দেহ হওয়ায় থানা পুলিশকে জানালে পুলিশের জিজ্ঞেসাবাদে সত্য ঘটনা বেরিয়ে আসে।

সাগড়দিঘী পুলিশ ত’দন্ত কেন্দ্রের ই’নচার্জ মনিরুজ্জামান জানান, লিজার বক্তব্য অনুযায়ী লিজা ও প’রকীয়া প্রেমিক শাহীন শ্বা’সরো’ধ করে তার স্বামী প্রতীক হাসানকে হ’’ত্যা করেছ। ঘটনাটি আশুলিয়া এলাকায় ঘটেছে। তাই আমরা লিজাসহ আরো দুজনকে আ’টক করে আশুলিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছি। এ হ’’ত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আশুলিয়া থানায় গতকাল মঙ্গলবার সকালে প্রতীক হাসানের বাবা বিল্লাল হোসেন মা’মলা দা’য়ের করেন।

আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক কায়সার হামিদ জানান, ঘা’তক লিজাসহ আরো তিনজনের নামে মা’মলা হয়েছে। লিজা, লিজার মা ফাতেমা ও দাদি লাকী’কে আ’দালতে মাধ্যমে জে’ল হাজতে পাঠানো হয়েছে। অপর আ’সামি শাহীন প’লাতক রয়েছেন। তাকে গ্রে’ফতারের চেষ্টা চলছে।

ঘাটাইল থানার ওসি মো: আজহারুল ইসলাম স’রকার বলেন, স্বামীকে খু’ন করে স্ত্রী নিজেই লা’শ নিয়ে আসে স্বামীর বাড়িতে। লা’শটি সু’রতহালে আ’ঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প’রকীয়ার কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com