সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৬:২০ পূর্বাহ্ন

৪ সন্তানক গলা কেটে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা

৪ সন্তানক গলা কেটে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা

৪ শিশুকন্যাকে গলা কেটে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন এক গৃহবধূ। মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের গুরুগ্রামের নুহ পিপরোলি গ্রামে।

নিহতরা হলো- মুসকান, মিসকিনা, আলসিফা ও আট মাসের মেয়ে সন্তান। অভিযুক্ত নারীর নাম ফারমিনা। খুরশিদ নামের এক যুবকের সাথে ২০১২ সালে বিয়ে হয় তার।

পুলিশ জানিয়েছে, চার শিশুকন্যাকে একই ভাবে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলাকাটা খুন করা হয়েছে। পুলিশের ধারণা তাদের মা-ই খুনের সঙ্গে জড়িত। তবে কী কারণে ওই নারী সন্তানদের হত্যা করে নিজে আত্মহত্যা করতে চাইছিলেন সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ।

প্রতিবেশীদের দাবি, চার সন্তানকে হত্যার পর নিজের গলা কাটার সময়ই ধরা পড়ে যান ফারমিনা। ঘটনার বিবরণ দিয়ে তারা বলেন, স্থানীয় সময় রাত ৩টার দিকে গৃহবধূর স্বামী খুরশিদ ঘর ভেতর থেকে আটকানো দেখতে পান। এরপর ভেন্টিলেটর দিয়ে উঁকি দিয়ে খুরশিদ দেখতে পান নিজের গলা কাটছেন ফারমিনা। পরে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে ৪ শিশুকে গলাকাটা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখতে পান। এরপর ফারমিনার হাত থেকে ছুরি নিয়ে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ বিষয়ে পুনহানা পুলিশ স্টেশনের এসএইচও সন্তোষ কুমার জানান, ‘প্রতিবেশী ও আত্মীয়দের বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com