মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন

মা চাইলেন ঔষধ, ছেলে বললেন বিষ খেতে

মা চাইলেন ঔষধ, ছেলে বললেন বিষ খেতে

শারিরীক অসুস্থতার জন্য ছেলেদের বলেছিলেন ঔষধ কিনে দিতে কিন্তু ছেলেরা ঔষধ না কিনে দিয়ে মাকে বলেছিলেন বিষ খেতে। আর এর জেরে অভিমানে বিষ পান করে আত্মহত্যা করেছেন ওই মা।

ঘটনাটি ঘটেছে ফেনীর ছাগলনাইয়ায়। ইতোমধ্যে এ ঘটনায় এক ছেলে ও দুই পুত্রবধূকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- ছেলে আবু রসুল ওরফে রাসেল (৩৫), তার স্ত্রী বিবি রোকসানা রিমা (২২) এবং আরেক ছেলে জয়নাল আবদীনের স্ত্রী আকলিমা আক্তার (২৮)।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ছাগলনাইয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) মাহবুবুর রহমান বলেন, ছাগলনাইয়া উপজেলার জয়নগর গ্রামের আয়েশা আক্তার (৭০) নামে এক বৃদ্ধা সোমবার (২৩ নভেম্বর) বিষপানে মারা যান। এ ঘটনায় বৃদ্ধার ভাই আবু তাহের বাদী হয়ে দুই ছেলে ও বৃদ্ধার তিন পুত্রবধূসহ পাঁচ জনকে আসামি করে ছাগলনাইয়া থানায় মামলা করেন। পরবর্তীতে ওই মামলার প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) রাতে বৃদ্ধার এক পুত্র ও দুই পুত্রবধূকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, উপজেলার জয়নগর গ্রামের মৃত সেকান্দর মিয়া ও তার স্ত্রী আয়েশা আক্তারের ৬ ছেলেসন্তান যাদের কয়েকজন প্রবাসী। দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়াঝাটিকে কেন্দ্র করে শারীরিক ও মানসিকভাবে ছেলে ও ছেলেদের স্ত্রীরা শাশুড়ি আয়েশা আক্তারকে নির্যাতন করতেন। নিজের শারীরিক অসুস্থতার জন্য ছেলেদের কাছে ওষুধ কিনতে টাকা চাইলে তারা মাকে ওষুধের পরিবর্তে বিষ কিনে খেতে বলে। আর ছেলে ও পুত্রবধূদের এমন আচরণে মানসিকভাবে আঘাত পেয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে গিয়ে সোমবার স্থানীয় চাঁদগাজী বাজার থেকে বিষ কিনে আনেন এবং সকাল সাড়ে ৯টার দিকে একটি কক্ষের দরজা বন্ধ করে বিষপান করেন আয়েশা আক্তার।

পরে পরিবারের অন্যরা বিষয়টি টের পেয়ে দরজা ভেঙে বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে প্রথমে ছাগলনাইয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনং পরে ফেনী সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে বৃদ্ধাকে মুমূর্ষু অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়। কিন্তু হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com