সুন্দরবনে বাঘের সাথে রুদ্ধশ্বাস লড়াই শেষে বেঁচে ফিরলেন নারী! - বাংলা একাত্তর সুন্দরবনে বাঘের সাথে রুদ্ধশ্বাস লড়াই শেষে বেঁচে ফিরলেন নারী! - বাংলা একাত্তর

বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৩৮ পূর্বাহ্ন

সুন্দরবনে বাঘের সাথে রুদ্ধশ্বাস লড়াই শেষে বেঁচে ফিরলেন নারী!

সুন্দরবনে বাঘের সাথে রুদ্ধশ্বাস লড়াই শেষে বেঁচে ফিরলেন নারী!

না, সুন্দরবনের কিংবদন্তি পচাব্দি গাজীর বাঘ-বধের গল্পগুলোর মতো আনুষ্ঠানিক দ্বৈরথ সেটি ছিল না। কাঁকড়া ধরতে গিয়ে নিছকই ঘটনাক্রমে বাঘের আক্রমণের মুখে পড়েন সুন্দরবনেরই এক নারী। মাথা ও দুই হাতে নখর বসিয়েও দিয়েছিল রয়েল বেঙ্গল টাইগার। তবু কেবল সাহস ও সঙ্গীদের উপস্থিত বুদ্ধির গুণে প্রাণে বেঁচে যান তিনি!

ঘটনাটি সুন্দরবনের ভারতীয় অংশের কলস দ্বীপের নিকটবর্তী বিজিয়াড়া জঙ্গলের। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ৩০ অক্টোবর (শনিবার) বনের ঐ অংশটিতে যান দক্ষিণ ২৪ পরগনার পাথরপ্রতিমার সত্যদাসপুরের বাসিন্দা কাজল মল্লিক। সঙ্গে ছিলেন তার স্বামী সুবল সহ আরও কয়েকজন। উদ্দেশ্য ছিল, খাঁড়ির ঈষৎ নোনা পানিতে কাঁকড়া ধরতে যাওয়া।

রোববার সন্ধ্যায় কাজ শেষ করে ছাউনিযুক্ত নৌকাতেই ছিলেন সবাই। আচমকাই ছাউনির ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে একটি বাঘ। হামলা করে কাজলকে। কিন্তু ভয় পেয়ে পালায়নি বাকিরা! উল্টো লাঠি, শাবল নিয়ে তারাই চড়াও হন বাঘের বিরুদ্ধে। বেধড়ক পিটুনি খেয়ে পালিয়ে যায় বাঘ।

গুরুতর জখম হন কাজল। নিয়ে যাওয়া হয় পাথরপ্রতিমা নামক একটি স্থানের হাসপাতালে। সেখানেই শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত চিকিৎসাধীন আছেন কাজল মল্লিক। এর আগে শনিবারও সুন্দরবনে কাঁকড়া ধরতে বাঘের কবলে পড়েছিলেন পঞ্চানন ভগতা নামে এক ব্যক্তি।

তখন সঙ্গীরা নৌকা কাছে এগিয়ে যান। চিৎকার শুনে লাঠি নিয়ে তেড়ে আসেন ৭ জন মৎস্যজীবী। শুরু হয় বাঘে-মানুষের মরণপণ এক লড়াই। সেই লড়াইতে শেষরক্ষা পান পঞ্চানন। সূত্রঃ যমুনা টিভি

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com