ঘরে বসে ইউটিউব দেখে সন্তানের জন্ম দিল কিশোরী! কান্না শুনে জানলেন মা-বাবা - বাংলা একাত্তরঘরে বসে ইউটিউব দেখে সন্তানের জন্ম দিল কিশোরী! কান্না শুনে জানলেন মা-বাবা - বাংলা একাত্তর

সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৭:৪৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ঘরে বসে ইউটিউব দেখে সন্তানের জন্ম দিল কিশোরী! কান্না শুনে জানলেন মা-বাবা

ঘরে বসে ইউটিউব দেখে সন্তানের জন্ম দিল কিশোরী! কান্না শুনে জানলেন মা-বাবা

ঘরে বসে ইউটিউব দেখে স’ন্তানের জন্ম দিল কেরলের ১৭ বছরের কি’শোরী। ঘুণাক্ষরেও টের পেলেন না কি’শোরীর বাড়ির লোকেরা। শেষপর্যন্ত মেয়ের ঘর থেকে বাচ্চার কা’ন্না শুনে দরজায় আকুল ধাক্কা। দেখা গেল, কি’শোরী মেয়ের কোলে শুয়ে তারস্বরে কাঁদছে সদ্যভূমিষ্ঠ। তড়িঘড়ি মা ও স’ন্তানকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে কেরলের মলপ্পুরমে। পুলিশ কি’শোরীর গর্ভে স’ন্তানের জন্ম’দাতা যুবককে গ্রে’ফতার করেছে।

কেরলের মলপ্পুরমে বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকে ১৭ বছরের ওই কি’শোরী। অ’ভিযোগ, গত সপ্তাহে নিজের ঘর থেকে একেবারেই বেরোয়নি সে। জিজ্ঞেস করলে উত্তর আসে, বির’ক্ত কোরো না, স্কুলের অনলাইন ক্লাস চলছে। স’ন্দেহ হয়নি পেশায় নিরাপত্তারক্ষী বাবা ও দৃষ্টিহীন মায়ের। এ ভাবেই চলছিল।

অন্য দিকে, নিজেকে ঘরব’ন্দি করে প্রসব বে’দনায় অস্থির ১৭ বছরের কি’শোরী দেখতে থাকে কী ভাবে নিজে নিজেই স’ন্তানের জন্ম দেওয়া যায়। এ কাজে সে বেছে নেয় ভিডিয়ো স্ট্রিমিং সাইট ইউটিউব-কে। শেষ পর্যন্ত ২৪ অক্টোবর, ইউটিউবের ভিডিয়ো দেখে শেখা পদ্ধতি অবলম্বন করেই স’ন্তানের জন্ম দেয় সে।

এ পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল। গোল বাধে তিন দিন পর, যখন স’ন্তান কেঁদে ওঠে। পাশের ঘরে মায়ের স’ন্দেহ হয়, শি’শুর চি’ৎকার আসছে কোথা থেকে? দরজা ধাক্কা দিতেই স্পষ্ট হয় সব কিছু। শি’শু কোলে বসে কি’শোরী মা!

দ্রুত মা ও শি’শুকে হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। বর্তমানে মা ও শি’শু, দু’জনেই সুস্থ আছে বলে জানা গিয়েছে। হাসপাতাল থেকেই খবর যায় পুলিশে। ত’দন্ত করে পুলিশ ২১ বছরের এক যুবককে পকসো আইনে গ্রে’ফতার করেছে। ওই যুবক কি’শোরীর প্রতিবেশী। দু’জনের মধ্যে অনেকদিন ধরেই প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু এই ঘটনার কথা পরিবারের কাছে চে’পে গিয়েছিল দু’জনই।

পুলিশ সূত্রে খবর, স’ন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর কী ভাবে নাড়ি কে’টে শি’শুকে মায়ের শরীরের থেকে আলাদা করতে হয়, কি’শোরীকে তা ইউটিউব দেখে শেখার পরামর্শ দিয়েছিল যুবক। সূত্রঃ আনন্দবাজার পত্রিকা

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com