কোচিংয়ে যাওয়ার সময় স্কুলছাত্রীকে নির্মাণাধীন ভবনে ডেকে নিয়ে জ’বাই - বাংলা একাত্তর কোচিংয়ে যাওয়ার সময় স্কুলছাত্রীকে নির্মাণাধীন ভবনে ডেকে নিয়ে জ’বাই - বাংলা একাত্তর

বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন

কোচিংয়ে যাওয়ার সময় স্কুলছাত্রীকে নির্মাণাধীন ভবনে ডেকে নিয়ে জ’বাই

কোচিংয়ে যাওয়ার সময় স্কুলছাত্রীকে নির্মাণাধীন ভবনে ডেকে নিয়ে জ’বাই

কোচিং-এ প্রাইভেট পড়ার জন্য সকালে বাড়ী থেকে বের হয়ে দু’র্বৃত্তদের হাতে জ’বাই হয়েছে সুমাইয়া (১৫) নামে এক স্কুলছাত্রী। এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর সঙ্গে থাকা অপর একজন মনির হোসেন (১৭) নামের এক কি’শোরকেও আ’ঘাত করা হয়। এতে করে মনির হোসেন ক্ষ’তবিক্ষ’ত হয়। সেসময় জ’বাই করা র’ক্তাক্ত কি’শোরীর ম’রদেহের পাশেই অজ্ঞান অবস্থায় পড়েছিলেন কি’শোর।

বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে টাঙ্গাইলের কালিহাতী এলেঙ্গা-ভূঞাপুর-বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব আঞ্চলিক সড়কের পাশে এলেঙ্গা পৌরসভার এলেঙ্গা শামসুল হক কলেজের সামনে খোকন নামের এক ব্যক্তির নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ের সিঁড়িতে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় পরে আ’হত কি’শোর মনিরকে উ’দ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন পুলিশ সদস্যরা।

স্কুল ছাত্রী সুমাইয়া উপজে’লার পালিমা গ্রামের ফেরদৌস রহমানের মেয়ে। তিনি উপজে’লার এলেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী। স্কুলছাত্রীর পরিবার এলেঙ্গা রিসোর্টের পাশে একটি ভাড়া বাসায় থাকতো। আ’হত ম‌নির পরিবহন শ্র’মিক হিসেবে কাজ করতো। এদিকে, আ’হত মনির হোসেন (১৭) একই উপজে’লার ভাবলা গ্রামের মেহের আলীর ছেলে। স্থানীয়রা জানান, সুমাইয়া সকালে বিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী প্রাইম কোচিং সেন্টারে যাওয়ার জন্য বের হয়। এ সময় তার সঙ্গে ছিল মনির নামে একজন। এ সময় দু’র্বৃত্তরা তাকে শামসুল হক কলেজের সামনে নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ে ডেকে নিয়ে সিঁড়ির নিচে জ’বাইয়ের পর হ’’ত্যা করে চলে যায়।

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. রাজীব পাল চৌধুরী বলেন, গু’রুতর আ’হত অবস্থায় মনির নামে এক কি’শোরকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তার অবস্থা সং’কটাপন্ন। তাকে জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। তার বুকে ধা’রালো কিছু দিয়ে আ’ঘাত করায় ভুড়ি বের হয়ে গেছে। এ ছাড়া তার ঘাড়ে দুটি কোপ দেওয়া হয়েছে।

এ বি’ষয়ে কালিহাতীর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, ‘এলেঙ্গা পৌরসভার শামসুল হক কলেজের সামনে এ ঘটনা ঘটে। সকালে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে জ’বাই করা এক কি’শোরী ও এক কি’শোরকে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়।’ এ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে র’ক্তাক্ত অবস্থায় কি’শোরীর ম’রদেহ উ’দ্ধার করা হয়। একই সঙ্গে আ’হত অবস্থায় অপর এক কি’শোরকে উ’দ্ধার করা হয়।

তিনি আরও জানান, পরে তাকে উ’দ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হলে তার অবস্থাও আ’শঙ্কাজনক হলে পরবর্তীতে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার্ড করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এদিকে, কি’শোরীর ম’রদেহ ময়না ত’দন্তের জন্য হাসপাতাল ম’র্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না ত’দন্তের রিপোর্ট হাতে পেলেই প্রকৃত ঘটনার র’হস্য জানা যাবে। তবে, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে প্রেমের সম্পর্কের জেরে এমন ঘটনা ঘটতে পারে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com