যেভাবে বগুড়ার অপু বিশ্বাস হলেন ‘ঢালিউড কুইন’ - বাংলা একাত্তরযেভাবে বগুড়ার অপু বিশ্বাস হলেন ‘ঢালিউড কুইন’ - বাংলা একাত্তর

শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০২:০৩ পূর্বাহ্ন

যেভাবে বগুড়ার অপু বিশ্বাস হলেন ‘ঢালিউড কুইন’

যেভাবে বগুড়ার অপু বিশ্বাস হলেন ‘ঢালিউড কুইন’

ঢাকাই সিনেমার অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ্বাস। ‘ঢালিউড কুইন’ নামে ডাকেন তার ভক্তরা। গত এক যুগেরও বেশী সময় ধরে তার মতো জনপ্রিয়তা দেশের কোনো নায়িকা পাননি। ইতোমধ্যে শতাধিক সিনেমায় কাজ করেছেন অপু বিশ্বাস। যার মধ্যে সিংহভাগই ব্যবসায়িকভাবে সফল। করোনাভীতি কাটিয়ে বর্তমানে সিনেমায় অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। পাশাপাশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের হয়েও প্রচারেও অংশ নিচ্ছেন।

১৯৮৩ সালের ১১ অক্টোবর বগুড়ায় জন্মগ্রহণ করেন অপু বিশ্বাস। চার ভাই-বোনের মধ্যে তিনিই সবার ছোট। সবার ছোট হওয়ার সুবাদে নানা আবদার-বায়না মিটিয়ে নিতেন সহজেই। অনলাইন দুনিয়ার বিভিন্ন ওয়েবসাইটে অপুর আসল নাম হিসেবে রয়েছে অবন্তী বিশ্বাস। তথ্যটি সঠিক নয়। তার আসল নাম অপু বিশ্বাসই। আর এই নাম রেখেছিলেন তার দাদু। অন্যদিকে অবন্তী নামটি মূলত নির্মাতা সুভাষ দত্ত দিয়েছিলেন। এবং তিনিই আদর করে ওই নামেই ডাকতেন।

ছোট বেলা থেকেই মায়ের আগ্রহেই মূলত নাচ শিখতে শুরু করেন তিনি। হাতেখড়ি বগুড়ার বুলবুল ললিতকলা একাডেমিতে। স্কুলের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানগুলোয় বরাবর মধ্যমণি ছিলেন তিনি। ক্লাস নাইনে পড়াকালীন লাক্স ফটোসুন্দরী প্রতিযোগিতায় ছবি পাঠান অপু বিশ্বাস। কয়েক দিন পরই অপুর কাছে চিঠি আসে। তাকে সেরা ২৫ জনের মধ্যে সিলেক্ট করা হয়েছে। প্রথমে খবরটি শুনে অপুর মা কিছুটা রেগে যান। পরে মেয়ের আগ্রহ দেখে মেনে নেন। এক পর্যায়ে অপু জায়গা পেয়ে যান সেরা দশে। কিন্তু হঠাৎ তার মা অসুস্থ হয়ে যাওয়ার কারণে আর অংশ নিতে পারেননি।

এরপর ২০০৪ সালে অপু বিশ্বাস যখন ক্লাস টেনে উঠলেন, তখন দূঃসম্পর্কের এক মামা তাকে সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব দেন। কিংবদন্তি নির্মাতা আমজাদ হোসেন পরিচিতি ‘কাল সকালে’ সিনেমার মাধ্যমে অপু বিশ্বাসের পথ চলা শুরু হয় ঢাকাই চলচ্চিত্রে। সিনেমাটিতে নায়ক-নায়িকার ভূমিকায় ছিলেন ফেরদৌস ও শাবনূর।

২০০৬ সালে এই আই মানিক পরিচালিত ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে সুপারস্টার শাকিবের সঙ্গে নায়িকার ভূমিকায় অভিনয় করেন তিনি। প্রায় সাড়ে ৩০০ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির পর দেশজুড়ে তুমুল জনপ্রিয়তা লাভ করে সিনেমাটি। ছবিটি ব্যবসা সফল হওয়ার পর অপুকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। রাতারাতি তারকা বনে যান তিনি। শাকিব খানের সঙ্গে অপু বিশ্বাসের জুটি দর্শকদের গ্রহণযোগ্যতা পায় দারুণভাবে।

২০০৬ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত অপু–শাকিব জুটি একাধারে ৭০ টির মতো ছবিতে অভিনয় করেন। একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে এক সময় প্রেমের সম্পর্ক হয় তাদের।এরপর ২০০৮ সালে ১৮ এপ্রিল কঠোর গোপনীয়তায় অপুকে বিয়ে করেন শাকিব। এরপর ১০টি বছর বিয়ের খবর গোপনই থাকে। প্রায় ১০ বছর পর, এক সন্তানের খবরের সঙ্গে নিজেদের বিয়ের খবর গণমাধ্যমে নিয়ে আসেন অপু।

এসব কারণে ২০১৭ সালের ২২ নভেম্বর শাকিব তালাকের জন্য আবেদন করেন। ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি এই দম্পতির তালাক সম্পন্ন হয়। এরপর থেকে একা রয়েছেন শাকিব। অন্যদিকে অপু একমাত্র ছেলে আব্রাম খান জয়কে নিয়ে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় বসবাস করছেন।

সর্বশেষ শাকিব খানের সঙ্গে বুলবুল বিশ্বাসের ‘রাজনীতি’ ছবিতে অভিনয় করেন অপু বিশ্বাস। এরপর তাদের আরও একসঙ্গে দেখা যায়নি নতুন সিনেমায়। বর্তমানে পরিচালক সোলায়মান আলী লেবুর ‘প্রেম প্রীতির বন্ধন’ সিনেমার শুটিং করছেন অপু বিশ্বাস। তার অভিনীত বেশ কয়েকটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় আছে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com