নির্যাতন করতেন নোবেল, ৯৯৯-এ ফোন উদ্ধার করে পেয়েছিলেন সালসাবিল

| আপডেট :  ৭ অক্টোবর ২০২১, ০২:৪৯ অপরাহ্ণ | প্রকাশিত :  ৭ অক্টোবর ২০২১, ০২:৪৯ অপরাহ্ণ

ভারতীয় সারেগামাপায় গান গেয়ে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন বাংলাদেশী নোবেল। কিন্তু বর্তমানে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির বিতর্কিত নাম গায়ক নোবেল। গান ছাড়াও তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বিভিন্ন সময় খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন তিনি। আর বিতর্কিত এই গায়ককে ডিভোর্সের নোটিশ পাঠিয়েছেন স্ত্রী সালসাবিল।

সালসাবিল বলেন, ‘নোবেল মানসিকভাবে চরম অসুস্থ, চরম মাদকাসক্ত, নারী নেশাসহ আমাকে নানাভাবে নির্যাতন করত; সব কিছুর প্রমাণ আমার কাছে আছে। এসব কারণে তাকে ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তবে স্ত্রীর বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ এনে নোবেল বলেন, ‘আমাকে বিষ খাইয়ে মেরে ফেলার চেষ্টা করেছে সালসাবিল। আমার ক্যারিয়ারের ধ্বংস করতে একটি পক্ষের হয়ে কাজ করেছে সে। সব সময় আমাকে মানসিক যন্ত্রণায় রেখেছে, যাতে আমি গান গাইতে না পারি। কনসার্ট করতে না পারি।’

এই অভিযোগের ভিত্তিতে সালসাবিল গণমাধ্যমকে বলেন, ‘নোবেল কী বলে, না বলে- কী বলতে পারে- সবাই জানে। সে মাদক গ্রহণ করে, মানসিকভাবে অসুস্থ। তার চিকিৎসা হওয়া জরুরি। আমি অনেক চেষ্টা করেছি। নোবেল নারী আর মদ ছাড়তে পারে না, সে সুস্থ হবে কিভাবে?’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি নেশা করার প্রতিবাদ করায় আমাকে মারতে মারতে এমন বাজে অবস্থা করেছে যে, আমি ৯৯৯-এ ফোন করি, এরপর পুলিশ এসে আমাকে উদ্ধার করে। পরে আমি গুলশান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি। ওই ঘটনার পর থেকে আলাদা আছি। সে যোগাযোগ করে, ধীরে ধীরে নরমাল হতে থাকে। কিন্তু আবার পাগলামি শুরু করে। আমি বাবার বাসা থেকেও বোঝানোর চেষ্টা করেছি, কিন্তু নোবেল সংশোধন হবে না। যে মানুষ মাদক আর নারী অভ্যাস ছাড়বে না, তাকে সুস্থ করা সম্ভব না। বাধ্য হয়েই আমি ওকে ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’