সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৬:২৮ পূর্বাহ্ন

স্ত্রীর ইচ্ছায় ডিভোর্স হলে দেনমোহরের টাকা পাবে কেন?

স্ত্রীর ইচ্ছায় ডিভোর্স হলে দেনমোহরের টাকা পাবে কেন?

‘স্ত্রী ডিভোর্স দিলে দেনমোহরের টাকা পাবে কেন?’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ পুরুষ অধিকার ফাউন্ডেশন।

মানববন্ধনে সংগঠনটির চেয়ারম্যান শেখ খায়রুল আলমসহ মহাসচিব প্রকৌশলী ফারুক শাজেদ শুভ, জেএইচখান শাহীন, মো. আনোয়ার হোসেন, পটুয়াখালী শাখার আহ্বায়ক কাজী মো. সুমন, সাকসেস হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো. সোবাহান বেপারী, ডিজিটাল আন্তর্জাতিক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো. আতিকুর রহমান, প্রচার সম্পাদক লিটন গাজী বক্তব্য রাখেন।

সংগঠনটির চেয়ারম্যান শেখ খায়রুল আলম বলেন, আমাদের দেশে বিয়ের সময় পাত্রীপক্ষ জোর করে পাত্রকে সাধ্যের অতিরিক্ত টাকা কাবিননামায় ধার্য করতে বাধ্য করেন। আর অধিকাংশ ক্ষেত্রে এসব কাবিন হয় বাকিতে। অর্থাৎ কনেপক্ষের দাবি অনুযায়ী, কাবিন করা হলো ১০ লাখ এর মধ্যে গহনা ও অন্যান্য জিনিস বাবদ ২ থেকে ৩ লাখ টাকা পরিশোধ দেখিয়ে পুরোটাই বাকি রাখা হয়।

তিনি অভিযোগ করেন, বাড়তি এই দেনমোহর পরে কাল হয়ে দাঁড়ায় এবং অতিরিক্ত দেনমোহরের কারণে স্বামী তার স্ত্রী ও পরিবারের লোকজনের অনৈতিক দাবি মেনে নিতে বাধ্য হন।

এসময় তিনি আরও বলেন, পবিত্র কোরআনের সুরা বাকারার আয়াত নং- ২২৯ অনুসারে যদি কোনও স্ত্রী তার স্বামীর কাছ থেকে মুক্ত হতে চান; তবে কোনোকিছুর বিনিময় হতে হবে, যা তার মোহরানার অতিরিক্ত হবে না। তাই ইসলাম অনুসারে দেখা যায়, স্ত্রী কর্তৃক স্বামী ক্ষতিগ্রস্ত হলে স্ত্রী স্বামীকে ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য। কিন্তু আমাদের দেশীয় আইন অনুযায়ী স্ত্রী স্বামীকে তালাক দিলেও স্বামীকে দেনমোহর প্রদান করতে হয়, যা ইসলামের সঙ্গে পুরোপুরি সামজ্ঞস্যপূর্ণ নয়।

এসময় তারা আরও অভিযোগ করেন, অনেকেই কাবিনের ব্যবসা করো কোটিপতি হয়ে যাচ্ছেন। উদাহরণ হিসেবে বলেন, লন্ডন প্রবাসী এক নারী প্রতি বছর বাংলাদেশে এসে বিয়ে করে কাবিনের ২০ লাখ টাকা নিয়ে যায়। যার শিকার হয়েছে তার। এই সমস্যা রোধে তারা বহু বিবাহ রোধে বিবাহের রেজিস্ট্রেশন ডিজিটালাইজেশন করার আবেদন জানান।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com