লটারিতে ১৪ কোটি টাকা পেয়ে রাতারাতি জীবন বদলে গেল অটোচালকের - বাংলা একাত্তরলটারিতে ১৪ কোটি টাকা পেয়ে রাতারাতি জীবন বদলে গেল অটোচালকের - বাংলা একাত্তর

শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০৫ পূর্বাহ্ন

লটারিতে ১৪ কোটি টাকা পেয়ে রাতারাতি জীবন বদলে গেল অটোচালকের

লটারিতে ১৪ কোটি টাকা পেয়ে রাতারাতি জীবন বদলে গেল অটোচালকের

বলা হয়ে থাকে ভাগ্যের জোরে যেকোনো সময় মানুষের জীবন বদলে যেতে পারে। আর এই কথারই যেনো প্রকৃষ্ট উদাহরণ ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কেরালার জয়পালান পিআর। রাতারাতি কোটিপতি হয়ে গেছেন ভারতীয় এই ব্যক্তি।

জয়পাল মূলত পেশায় ছিলেন একজন অটোরিকশা চালক। নিজের জীবন, সংসার আর পরিবারের সদস্যদের প্রয়োজনীয় চাহিদা মেটাতেই সংগ্রাম করতে হতো তাকে। কিন্তু লটারি জিতে সেই অটোচালকই হয়ে গেলেন কোটিপতি। সেটিও এক বা দুই কোটি নয়; প্রায় ১৪ কোটি টাকা।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া ও টাইমস নাউ। সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, কেরালার ত্রিপুনীথুরা থেকে গত ১০ সেপ্টেম্বর ওনাম বাম্পার লটারির টিকিটটি কেটেছিলেন জয়পালান। গরুত রোববার তিঅনন্তপুরমের গোর্কি ভবনে লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হয়। কেরালা রাজ্যের অর্থমন্ত্রী কে এন বালগোপাল অনুষ্ঠানটির উদ্বোধন করেছিলেন। রাজ্যজুড়ে বিক্রি হওয়া ৫৪ লাখ টিকিটের মধ্যে বেছে নেওয়া হয় প্রথম পুরস্কার বিজয়ীকে। আর সেই পুরস্কারের আর্থিক মূল্য ১২ কোটি রুপি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ১৪ কোটি টাকা।

স্থানীয়রা জানান, জয়পালানকে অনেকে ভালোবেসে কান্নান বলে ডেকে থাকেন। তিনি মারাদু শহরের কোত্তারাম ভগবতী মন্দিরের পাশে বসবাস করেন এবং নিজের অটোরিকশা নিয়ে স্থানীয় আম্বেদকার জংশন অটো স্ট্যান্ডেই বেশিরভাগ সময় অবস্থান করেন।

রাতারাতি বড়লোক হওয়ার পর জয়পাল বলেন, ‘লটারির নম্বর ছিল টিই৬৪৫৪৬৫। সংখ্যাটি দেখে আমার ভাল লেগেছিল বলেই ওই টিকিটটি কেটেছিলাম। এ ব্যাপারে কারও পরামর্শ নিইনি।’

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com