বিশ্ববিদ্যালয়ের সবচেয়ে সুন্দরী মেয়েকে বিয়ে, ২ বছর না যেতেই তালাক দিতে চান অভিনেতা - বাংলা একাত্তরবিশ্ববিদ্যালয়ের সবচেয়ে সুন্দরী মেয়েকে বিয়ে, ২ বছর না যেতেই তালাক দিতে চান অভিনেতা - বাংলা একাত্তর

শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮:০০ পূর্বাহ্ন

বিশ্ববিদ্যালয়ের সবচেয়ে সুন্দরী মেয়েকে বিয়ে, ২ বছর না যেতেই তালাক দিতে চান অভিনেতা

বিশ্ববিদ্যালয়ের সবচেয়ে সুন্দরী মেয়েকে বিয়ে, ২ বছর না যেতেই তালাক দিতে চান অভিনেতা

বিশ্ববিদ্যালয়ের সবচেয়ে সুন্দরী মেয়ে ছিল রিতু। তার সৌন্দর্যের প্রেমে পড়েন অভিনেতা আফফান মিতুল। ভালোবেসেই বিয়ে করেন তারা। দাম্পত্যের শুরুতে সবকিছু ঠিকঠাক চলছিল। বেশ সুখেই দিন কাটছিল তাদের। কিন্তু বিয়ের ২ বছর পর রিতুর ওজন প্রায় ৩ গুণ বেড়ে যায়।

তবে মিতুল আগের মতোই ফিট থাকে। মোটা বউকে নিয়ে বিব্রত এই অভিনেতা। প্রতিদিন তাদের খুনসুটি লেগেই থাকে। বউয়ের গায়ে হাত তুলতেও কুণ্ঠাবোধ করে না মিতুল। এমনকি তালাকও দিতে চায়। একসময় পরিস্থিতি মিতুলকে শেখায় মানুষের শরীরের গড়ন আর চেহারা নয়, ভালোবাসতে হবে মানুষের মনকে। সে তার ভুল বুঝতে পারে।

বাস্তবে নয়, ঘটনাটি দেখা যাবে ‘আর পারছি না’ শিরোনামের একটি একক নাটকে। সম্প্রতি সাভার আমিন বাজার সংলগ্ন মধুমতি মডেল টাউনে নাটকটির দৃশ্যধারণ শেষ হয়েছে। বর্তমানে নাটকটির সম্পাদনার কাজ চলছে। এতে স্বামী-স্ত্রী চরিত্রে অভিনয় করেছেন আফফান মিতুল ও তানিয়া রিতু। এই নাটকের মাধ্যমে আফফান মিতুলের সঙ্গে প্রথমবারের মতো জুটি বেঁধেছেন ‘আয়না সুন্দরী’ খ্যাত নায়িকা।

নাটকটি প্রসঙ্গে আফফান মিতুল আরটিভি নিউজকে জানান, ‘বিয়ের পর স্ত্রীর অস্বাভাবিক মোটা হওয়া আর তাতে স্বামীর দূরে সরে যাওয়া, এমন গল্পের নাটক এটি। কোনোভাবেই এটা কমেডি নাটক নয়। নাটকের কোনো দৃশ্য দেখে কেউ হাসবে না, এটা আমি নিশ্চিত।’

তিনি আরও বলেন, ‘নাটকটিতে একটি বিশেষ ম্যাসেজ আছে। এতে কিছু সমস্যা খুঁজে বের করার চেষ্টা করা হয়েছে, দেয়া হয়েছে সমাধান। এই নাটকটি আপনাদের ভালো লাগলে পরিশ্রম সার্থক হবে।’

ঝর্না আহমেদের গল্পে নাটকটি পরিচালনা করেছেন চলচ্চিত্র নির্মাতা সায়মন তারিক। মিতুল-রিতু ছাড়াও নাটকটিতে বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন শাওন আশরাফ, শুভ খান, ছোঁয়ামনি।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com