স্ত্রীর সঙ্গে ৫ যুবকের ভয়ংকর সাড়ে ৩ ঘণ্টা, তাকিয়ে দেখলো অসহায় স্বামী

| আপডেট :  ২২ আগস্ট ২০২১, ০৫:২২ অপরাহ্ণ | প্রকাশিত :  ২২ আগস্ট ২০২১, ০২:১১ অপরাহ্ণ

দিনাজপুরের বিরামপুরে স্বামীকে আ’টকে রেখে স্ত্রীকে (৪০) গণধ”ণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অ’ভিযুক্ত পাঁচ যুবককে আ’টক করেছে থানা পুলিশ। ভু’ক্তভোগী নারী ও শি’শু নি’র্যাতন আইনে থানায় মা’মলা দা’য়ের করেছেন। শুক্রবার দিবাগত রাতে বিরামপুর উপজে’লার দিওড় ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া গ্রামের ইউক্যালিপটার বাগানে এ ঘটনা ঘটে। বিরামপুর থানা অফিসার ই’নচার্জ (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মা’মলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাত আনুমানিক সাড়ে ১০টার দিকে স্বামীসহ স্থানীয় একটি অটোভ্যানযোগে নবাবগঞ্জ যাচ্ছিল ওই নারী। পথে বাঁশবাড়িয়া গ্রামে অ’ভিযুক্তরা তার পথ আ’টকে অটোভ্যান চালককে মা’রধর করে। এ সময় স্বামী আনিছুর রহমানকে কয়েকজন আ’টকে রেখে ওই গৃ’হবধূর মুখ চে’পে ধরে রেজাউল করিমের বাড়ির দক্ষিণ দিকে ওহেদ মেম্বারের ইউক্যালিপটার বাগানে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধ”ণ করে ফে’লে রেখে চলে যায়।

পরে রাত ১টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন দেন ওই নারী। ফোন পেয়ে বিরামপুর থানা পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ভু’ক্তভোগী ও তার স্বামী আনিছুরসহ ভ্যানচালককে উ’দ্ধার করেন এবং রাত থেকে ভোর পর্যন্ত ওই এলাকায় অ’ভিযান চা’লিয়ে অ’ভিযুক্ত ৫ আ’সামিকে আ’টক করেন।

আ’টককৃতরা হলেন- উপজে’লার কানিকাঠাল গ্রামের সুলতান হোসেনের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (৩৫), বাঘার পাড়া গ্রামের মহরমের ছেলে আব্দুল লতিফ (৩৬), বেপারীটোলা গ্রামের কুরবান আলীর ছেলে শুভমিয়া (২০), আকতার হোসেনের ছেলে আবু রায়হান (৪০), মজিবর হোসেনের ছেলে ময়নুল ইসলাম (২০)।

এ ব্যাপারে বিরামপুর থানা অফিসার ই’নচার্জ (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত জানান, ভু’ক্তভোগী জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাদের উ’দ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নারী ও শি’শু নি’র্যাতন আইনে বেশ কয়েকজনকে আ’সামি করে মা’মলা দা’য়ের করা হয়েছে এবং পাঁচ আ’সামিকে আ’টক করে রোববার দিনাজপুর আ’দালতে পাঠানো হয়েছে।