সাত মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা হওয়ার পর স্ত্রী জানলেন স্বামী হিন্দু! - বাংলা একাত্তরসাত মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা হওয়ার পর স্ত্রী জানলেন স্বামী হিন্দু! - বাংলা একাত্তর

সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন

সাত মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা হওয়ার পর স্ত্রী জানলেন স্বামী হিন্দু!

সাত মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা হওয়ার পর স্ত্রী জানলেন স্বামী হিন্দু!

গার্মেন্টসে কাজ করার সময় প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিলো দুজনের মাঝে। এক পর্যায়ে বিয়ে করে সংসারও শুরু করেন তারা। কিন্তু কয়েকমাস পরেই আত্মগোপনে চলে যান স্বামী। স্বামীকে খুঁজতে গিয়ে স্ত্রী জানতে পারেন স্বামী হিন্দু ধর্মাবলম্বীর এবং মিথ্যা পরিচয় দিয়ে বিয়ে করেছেন তাকে।

অভিযুক্ত এই ব্যক্তির নাম জুয়েল চন্দ্র দাস। তিনি রামগতির বড়খেরী ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রামের কালামিয়া পন্ডিতের হাট এলাকার শ্যামল চন্দ্র দাসের ছেলে। জানা গেছে,এক বছর আগে নিজের ধর্মীয় পরিচয় গোপন করে শেরপুর জেলার এক তরুণীকে বিয়ে করেছিলেন তিনি।

ভুক্তভোগী জানান, এক বছর আগে জুয়েল নিজের ধর্মীয় পরিচয় গোপন করে প্রতারণার মাধ্যমে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়েন। পরে বিয়ে করেন। বিয়ের দিন কাজীকে মুসলিম পরিচয়ে জন্মসনদ দেন জুয়েল। এরপর থেকে সংসার শুরু করেন তারা। কয়েকমাস পরে জুয়েল আত্মগোপন করেন। এর মধ্যে তার স্ত্রী সন্তানসম্ভবা হন।

গর্ভে সন্তান আসার পর থেকেই স্বামীকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করেন ভুক্তভোগী। গর্ভধারণের পর জুয়েলের খোঁজ করতে করতে তিনি রামগতির বড়খেরী ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রামের কালামিয়া পন্ডিতের হাট এলাকায় এসে তার খোঁজ পান। তখনই স্বামীর আসল পরিচয় পান ওই নারী। জানতে পারেন, জুয়েল মুসলিম নন, হিন্দু।

এ বিষয়প রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলায়মান বলেন, স্বামীর খোঁজে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়াসহ পুলিশের সহায়তা চেয়ে রামগতি থানায় আসেন ভুক্তভোগী। পরবর্তীতে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে জুয়েলের ঠিকানা সংগ্রহ করা হয় এবং ওই নারীকে আইনি ব্যবস্থায় নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com