বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৭:১৬ পূর্বাহ্ন

মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে সবচেয়ে পিছিয়ে বাংলাদেশ, অবস্থান সিরিয়া-উগান্ডার চেয়েও খারাপ

মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে সবচেয়ে পিছিয়ে বাংলাদেশ, অবস্থান সিরিয়া-উগান্ডার চেয়েও খারাপ

২০০৮ সাল থেকে বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার। গত প্রায় এক দশকে প্রযুক্তি জগতে অনেকটাই এগিয়েও গিয়েছে বাংলাদেশ৷ প্রতিটা ক্ষেত্রকেই করা হচ্ছে ডিজিটালাইজেশন। কিন্তু এতদিন পরেও বিশ্বে মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে সবচেয়ে পিছিয়ে পড়া দেশের একটি বাংলাদেশ।

এমনকি যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়া (১০৪), আফ্রিকার উগান্ডার (১২২) মতো দেশও মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে!। দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশের চেয়ে একমাত্র আফগানিস্তানের ইন্টারনেটের গতি-ই ধীর। মোবাইল ইন্টারনেটের গতিতে বিশ্বের ১৩৭ টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৩৪ নম্বরে। বাংলাদেশের চেয়ে খারাপ অবস্থা কেবল যথাক্রমে সোমালিয়া, ভেনেজুয়েলা ও আফগানিস্তানের।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মোবাইল এবং ফিক্সড ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের গতি কেমন, তা নির্ধারণে ‘স্পিডটেস্ট গ্লোবাল ইনডেক্স’ নামের একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে ‘ওকলা’। তাদের সর্বশেষ মে মাসের প্রতিবেদনে এসব তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী বাংলাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের গড় ডাউনলোড গতি ১২.৫৩ এমবিপিএস, আপলোড গতি ৭.৮৫ এমবিপিএস। আর ল্যাটেন্সি (মোবাইল ফোনের সংকেত ইন্টারনেট সার্ভারে পৌঁছানোর সময়) ৪৮ এমএস।

তবে এক্ষেত্রে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট গতি বিবেচনায় বাংলাদেশ তুলনামূলকভাবে এগিয়ে রয়েছে। ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট গতির ক্ষেত্রে ১৮০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ৯৬ নম্বরে। বাংলাদেশে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের ক্ষেত্রে ডাউনলোড গতি ৩৮.১৩ এমবিপিএস, আপলোড গতি ৩৬.৬২ এমবিপিএস এবং ল্যাটেন্সি ১২ এমএস।।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com